Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নেত্রকোনায় স্ত্রীর পরকীয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্বামীকে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা : স্ত্রীর পরকীয়ার বাঁধা দেয়ার জেরে স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী, জনপ্রতিনিধি, পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা উপজেলার বাউসী ইউনিয়নের কডর পাড়া গ্রামের আকরাম আলীর ছেলে আব্দুল হাই (৪০)-এর সাথে প্রায় আট বছর আগে একই উপজেলার বড় ভিটা গ্রামের সোয়া চাঁনের মেয়ে সুফিয়া আক্তারের(২৮) বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে সাত বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই আব্দুল হাইয়ের সঙ্গে সুফিয়ার দাম্পত্য কলহ্ চলে আসছিল। আব্দুল হাই সুফিয়াকে পরকীয়া প্রেমে জড়িত বলে সন্দেহ করতো। এ নিয়ে একাধিকবার স্থানীয় জন প্রতিনিধিসহ এলাকার ব্যক্তিদের নিয়ে বৈঠক হয়েছে। আব্দুল হাই বৃহস্পতিবার বিকেলে স্ত্রী সুফিয়াকে পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় সুফিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বামীর কাছে নগদ ২০ হাজার টাকা দাবি করে। হত দরিদ্র আব্দুল হাই টাকা দিতে অস্বীকার করায় সুফিয়া তাকে লোক দিয়ে দেখে নেয়ার হুমকি দেয় বলে নিহতের ছোট ভাই আব্দুল বারেক সাংবাদিকদের জানান। তিনি আরো জানান, সুফিয়া কদ্দুছ মিয়া, নোমান মিয়াসহ একাধিক ব্যক্তির সাথে পরকিয়া প্রেমে লিপ্ত ছিল। ঘটনার পর থেকে কুদ্দুছ ও নোমান পলাতক রয়েছে। সুফিয়া তার লোকজন নিয়ে আমার ভাইকে মেরে প্রথমে ঘরে রশি দিয়ে ফাঁসিতে ঝুলাতে চেষ্টা করে। পরে ঘরের মেঝেতে ফেলে রাখে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য শান্তুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এদের পারিবারিক কলহের বিষয়ে একাধিকবার সালিস হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নেত্রকোনায় স্ত্রীর পরকীয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্বামীকে হত্যার অভিযোগ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ