Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ করতে চায় না আমেরিকা: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০১৯, ১০:১৭ এএম

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, তার দেশ ইরানের সঙ্গে সামরিক সংঘাতে যেতে চায় না। আমেরিকা যখন মধ্যপ্রাচ্যে একের পর এক রণতরী পাঠিয়ে ইরানের সঙ্গে উত্তেজনার পারদ বাড়িয়ে চলেছে তখন এ বক্তব্য দিলেন পম্পেও। তিনি রাশিয়া সফরে গিয়ে মঙ্গলবার বন্দরনগরী সোচিতে বলেন, “আমরা মূলত ইরানের সঙ্গে যুদ্ধে যেতে চাচ্ছি না।”

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে এক বৈঠকের পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইরানকে সতর্ক করে দিয়ে একথাও বলেন, মার্কিন স্বার্থে আঘাত আসলে ওয়াশিংটন উপযুক্ত উপায়ে তার জবাব দেবে।

মাইক পম্পেও ইরানের বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত গঠনে ব্যর্থ হওয়ার পর তেহরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে না যাওয়ার কথা জানালেন। তিনি সোমবার রাশিয়া সফরে যাওয়ার পথে ব্রাসেলসে অনির্ধারিত যাত্রাবিরতি করেন। ইউরোপীয় দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদেরকে ইরান বিরোধী পদক্ষেপে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে তিনি ওই যাত্রাবিরতি করলেও ইউরোপীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা পম্পেওর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে অস্বীকৃতি জানান। শেষ পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা ফেডেরিকা মোগেরিনির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

এরপর রাশিয়া সফরে গিয়ে নিজের ইরান নীতির প্রশ্নে রাশিয়ার কঠোর বিরোধিতার সম্মুখীন হন মাইক পম্পেও। রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ স্পষ্ট জানিয়ে দেন, পাশ্চাত্যের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা থেকে ওয়াশিংটন বেরিয়ে গেলেও এর প্রতি রাশিয়ার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। এ সমঝোতা পুরোপুরি বাস্তবায়ন করে উত্তেজনা প্রশমনের আহ্বান জানান ল্যাভরভ। তিনি বলেন, আমেরিকা এ সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে মারাত্মক ভুল করেছে।



 

Show all comments
  • Nasir Uddin ১৫ মে, ২০১৯, ২:২৬ পিএম says : 0
    বিশ্বের সকল অশান্তির মুলে আমেরিকা, ইসরাইল ও ভারত।
    Total Reply(0) Reply
  • Mazharul Islam Mobin ১৫ মে, ২০১৯, ২:২৭ পিএম says : 0
    ইরানের সঙ্গে লাগতে গেলে কপালে দুঃখ আছে
    Total Reply(0) Reply
  • Billal Hosen ১৫ মে, ২০১৯, ২:২৫ পিএম says : 0
    আমেরিকা সবচেয়ে বেশি যুদ্ধ প্রিয় দেশ
    Total Reply(0) Reply
  • Golam faruque ১৫ মে, ২০১৯, ৩:৩৬ পিএম says : 0
    আমেরিকা, ইসরায়েল এবং সৌদির এজেন্ডা বাস্তবায়ন এই রনহুঙ্কার। তবে যুধ্য হলে এর সকল খরচ সৌদির কাছ থেকে কান ধরে আদায় করবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ