Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

আল-আকসায় প্রবেশে ইসরাইলি বাধা

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

রমজান মাসে ইসরাইলি দখলদারিত্বে থাকা আল-আকসা মসজিদে প্রবেশে বাধার মুখে পড়ছেন ফিলিস্তিনিরা। আরব যুক্তরাষ্ট্রন এক উদ্যোক্তার প্রতিষ্ঠিত ওয়াশিংটন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল মনিটর জানিয়েছে, মুসলমানদের কাছে পবিত্র মাস রমজানে আল আকসায় যেতে বহু সংখ্যক ফিলিস্তিনি আবেদন করলেও কেবলমাত্র ১৬ বছরের নিচে ও ৪০ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্কদেরই মসজিদটিতে যেতে দেওয়া হচ্ছে। আর কেবল শুক্রবারে সব বয়সী মহিলারাই সেখানে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন। তবে কেন অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না সে বিষয়ে কোনও কিছুই জানাচ্ছে না ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ। পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণটি একইসঙ্গে মুসলিম ও ইহুদিদের জন্য পবিত্র স্থান বলে বিবেচিত হয়। মুসলিমরা একে আল হারাম আল শরিফ নামে ডেকে থাকেন। আর ইহুদিরা এ স্থানটিকে ডাকেন টেম্পল মাউন্ট নামে। ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর যখন ইসরাইল এই এলাকায় প্রবেশাধিকার পায় তখন শুধু মুসলিমরাই আল-আকসায় নামাজ পড়তে পারতো। দিনের একটি নির্দিষ্ট সময় প্রার্থনার সুযোগ পেত ইহুদিরা। ১৯৬৭ সালের পর থেকে ইসরাইল পূর্ব জেরুজালেম দখল করে রেখেছে। পূর্ব জেরুজালেমকে নিজেদের অবিভাজ্য রাজধানী বলে দাবি করে থাকে ইসরাইল। অবশ্য জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বড় একটি অংশ ইসরাইলের এই দখলদারিত্বকে স্বীকৃতি দেয় না। সোমবার আল মনিটরের খবরে বলা হয়েছে, দশ বছর আগে রমজান মাসে আল আকসায় প্রবেশ করতে পশ্চিম তীরের জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের অনুমতি দেওয়া শুরু করে ইসরাইল। সাধারণত বয়স বিবেচনা ও ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সাথে ইসরাইলের রাজনৈতিক সম্পর্ক বিবেচনা অনুমতি পাওয়ার যোগ্যতা বলে বিবেচিত হয়। অনুমোদন দেওয়ার আনুষ্ঠানিক কোনও শর্ত নেই। কেবলমাত্র বিবেচনার ওপরই অনুমতি দেয় ইসরাইল। আবেদনকারীরা প্রবেশের অনুমতির জন্য আবেদন করে কিন্তু কেন বাতিল করা হয়েছে তা জানানোর বাধ্যবাধকতা নেই। খবরে বলা হয়েছে, ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি পুরুষেরা আল আকসায় যেতে একইভাবে আবেদন করতে পারে। তবে এবারে এই বয়স সীমার পুরুষদের কেনও অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না তার কোনও কারণ জানায়নি ইসরাইল। আর ১৬ থেকে ২৯ বছর বয়সীরা আবেদনের যোগ্য নয় বলেই বিবেচিত হয়। আল মনিটর।



 

Show all comments
  • Helalkhan Nasir ১৬ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 1
    হে আল্লাহ ফিলিস্তিনি মুসলমানদের আর কত পরীক্ষা নেবে তুমি। তুমি তোমার কুদরতের ওদেরকে সাহায্য করো। পৃথিবীতে তুমি ছাড়া তাদের আর কেউ নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Haider Ali ১৬ মে, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 1
    আল্লাহ ইস্রায়িলী দের নিজ হাতে বিচার করবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Santo Islam ১৬ মে, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 2
    ইসরায়েল সৌদির প্রকৃত বন্ধু আরো অনেক কিছু দেখার বাকি আছে আমাদের
    Total Reply(0) Reply
  • MD Faruk Miya ১৬ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 1
    ইসরাইল নিপাত যাক।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Faruk Miya ১৬ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 1
    ইসরাইল নিপাত যাক।
    Total Reply(0) Reply
  • Hafizur Rahman ১৬ মে, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 1
    মুসলিমরা এত নিরজাতিত কারন বড় বড় নেতারা কেহই প্রকৃত মুসলমান না
    Total Reply(0) Reply
  • Mj Alam ১৬ মে, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 1
    ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করেনি, করবেনা, অহিংস ইহুদীদের সহিংস কর্মকাণ্ড দেখে আমরা অবাক হইনি, কারন সহিংস সবাই, জঙ্গীবাদের তকমাটাই শুধু মুসলিমদের,
    Total Reply(0) Reply
  • Serajul Haque ১৭ মে, ২০১৯, ১০:০৪ পিএম says : 0
    ইয়াহুদী একটা অবৈধ জাতি, দাজ্জালের এজেন্ট। তুমি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ