Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী গভীর ষড়যন্ত্র চলছে

পীর সাহেব চরমোনাই

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, ইসলাম ও মুসলামনদের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। বাংলাদেশও সে ষড়যন্ত্র থেকে বাদ নেই। সরকারের ভেতর ও বাইরে ঘাপটি মেরে থাকা কতিপয় নাস্তিক-বেঈমান ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে বিষোদগার করে যাচ্ছে। দাড়ি রাখা, টাখনুর উপর কাপড় পড়া জঙ্গি লক্ষণ সম্প্রীতি বাংলাদেশ নামক সংগঠনের নামে পীযুষ বন্দোপাধ্যায় বিজ্ঞাপন প্রচার করে মুসলমানদের ঈমান ও আমলের ওপর আঘাত করেছে। গতকাল বুধবার বরিশালের চরমোনাই মাদরাসা ময়দানে অনুষ্ঠিত বিশাল তালিম তারবিয়াতের আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। 

পীর সাহেব বলেন, ইসলামের আবশ্যক পালনীয় দাড়ি রাখা, টাখনুর উপর কাপড় পড়াসহ বেশ কিছু লক্ষণকে জঙ্গি লক্ষণ হিসেবে তুলে ধরে পীযুষগংরা সম্প্রীতি বিনষ্ট করে বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর দেশ হিসেবে বিশ্বে তুলে ধরার চক্রান্ত করছে। সম্প্রীতি বাংলাদেশ নামক সংগঠন ও তৈরিকৃত বিজ্ঞাপন বাজেয়াপ্ত করে এর আহ্বায়ক পীযুষ বন্দোপাধ্যাকে গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে। আলোচনায় পীর সাহেব চরমোনাই ছাড়াও নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই, মাদরাসার শিক্ষকগণ এবং চরমোনাই ইউপি চেয়ারম্যান মুফতী এছহাক মুহাম্মদ আবুল খায়ের অংশ নেন।
ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তর
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর যুগ্ম মহাসচিব গাজী আতাউর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশে আজ নারী ও শিশুধর্ষণ এবং নির্যাতন মহামারী আকার ধারণ করেছে। ধর্ষণের পর অপরাধ ধামাচাপা দিতে অনেককে পৈচাশিকভাবে হত্যাও করা হচ্ছে। দেশের সামাজিক ক্ষেত্রে নৈতিক অবক্ষয় চলছে। বর্তমানের এই পৈচাশিকতা ও বর্বরতা অন্ধকার বর্বর যুগকেও হার মানিয়েছে। বুধবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ক্যান্টনমেন্ট থানা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সংগঠনের ক্যান্টনমেন্ট থানা সভাপতি ওয়ারেন্ট অফিসার (অব.) আমিনুল ইসলাম তালুকদারের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিলে আরো বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মুহা. সোহেল আহমেদ, মুহা. মুনির হোসেন, মুহা. জুলফিকার আলী প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন