Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

জঞ্জাল কমাবে জীবন সহজ হবে ও রাজস্ব বাড়াবে ডিটিএইচ সেবা -তথ্যমন্ত্রী

জীবনকে রাঙাতে আকাশের যাত্রা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০১৯, ৬:০৬ পিএম

ঝুলন্ত তার (ক্যাবল) অপসারণে গত আট বছর ধরে নানা পদক্ষেপের কথা শুনালেও কার্যকর কোন ব্যবস্থা নেয়নি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো। দায় সারাভাবে মাঝে মাঝে কোথাও কোথাও তার কাটলেও ঘণ্টাখানিকের মধ্যেই সড়কটি ফিরে পায় পুরোনো চিত্র। মূল সড়ক কিংবা গলি পথে উপরের দিকে তাকালেই চোখে পড়ে বিদ্যুতের পিলারে বট গাছের ঝুরির মতো ঝুলছে তার। এসব ঝুলন্ত তারে একদিকে যেমন নষ্ট হচ্ছে সড়কের সৌন্দর্য্য অন্যদিকে ঘটছে দুর্ঘটনাও। তারের জঞ্জাল থেকে মুক্তি দিতে এবার নতুন এক সেবা চালু করছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেড। বিনোদন জীবনকে আরও রাঙিয়ে তুলতে দেশে প্রথমবারের মতো যাত্রা শুরু হলো বিশ্বমানের ডিরেক্ট টু হোম (ডিটিএইচ) সেবা। আকাশ ব্র্যান্ড নামে এ সেবা বাজারজাত করছে বেক্সিমকো। বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে ডিটিএইচ সেবা আকাশের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি। অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স’র চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন একই কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডিএস ফায়সাল হায়দার। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেক্সিমকো গ্রুপের চেয়ারম্যান সোহেল এফ রহমান, তথ্য মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীন, বাংলাদেশ কমিউনিকেশন্স স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) বোর্ড চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সারাফাত, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এহসান খসরু প্রমূখ।

ডিটিএইচ সেবার মাধ্যমে স্যাটেলাইট চ্যানেল দেখার সুযোগ হলে শহরের জঞ্জাল কমবে ও জীবন সহজ হবে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল দেখানোর ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা ফেরাতে এবং ট্যাক্স আদায়ের মাধ্যমে রাজস্ব বাড়াতে ডিটিএইচ প্রযুক্তি কাজ করবে। তারবিহীন এই প্রযুক্তির ব্যবহারে শহর থেকে তারের (ওভারহেড ক্যাবল) জঞ্জাল সরবে। বাড়বে সৌন্দর্য। মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা সম্প্রচারের ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা আনার চেষ্টা করছি। বিদেশি টিভি চ্যানেলে দেশীয় পণ্যের বিজ্ঞাপনের প্রচার বন্ধ করেছি। পৃথিবীর কোনও দেশে এটা হয় না উল্লেখ করে তিনি বলেন, জুলাই মাসের পরে কেউ এটা করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নকে আরও একধাপ এগিয়ে নিলো আকাশ ডিটিএইচ। এ সেবা যেন সহজে সব মানুষ ব্যবহার করতে পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। দূরবর্তী এলাকায় ক্যাবল লাইনের সেবা দেয়া প্রায় অসম্ভব। তাই তারবিহীন এ প্রযুক্তি সেই বিচ্ছিন্ন এলাকাতে সহজেই তথ্য ও বিনোদনের সুযোগ নিশ্চিত করতে পারে।

বেক্সিমকো কমিউনিকেশনস লিমিটেড জানায়, বিশ্বব্যাপী পে-টিভি শিল্পে ডিটিএইচ একটি উচ্চতর প্রযুক্তি। বাংলাদেশী দর্শকদের প্রয়োজন মেটাতে দেশী-বিদেশী জনপ্রিয় ১১০টি চ্যানেল সম্প্রচারের বড় সংগ্রহ নিয়ে এসেছে আকাশ। এর মধ্যে রয়েছে ২০ টি হাই ডেফিনিশন (এইচডি) টিভি। দেশে টিভি দেখার স্বাদ ও অভিজ্ঞতা বদলে দেবে এ প্রযুক্তি। আগামী ১৯ মে দেশের ২০টি জেলায় আকাশ ডিটিএইএচ বাণিজ্যিকভাবে পাওয়া যাবে। জেলাগুলো হলো- ঢাকা, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এবং সুনামগঞ্জ। শিগগিরই দেশের অন্যান্য জেলাতেও অনুমোদিত খুচরা বিক্রেতাদের কাছ থেকে এ ডিটিএইচ পাওয়া যাবে।

ভ্যাটসহ মাসিক ৩৯৯ টাকায় এ সেবা উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহকরা। শিগগিরই আরও নতুন চ্যানেল এবং ভিডিও অন ডিমান্ড ও প্রোগ্রাম রেকর্ডিংয়ের মত নতুন সেবা-ফিচার যুক্ত করা হবে। বিদ্যমান ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রোগ্রাম রিমাইন্ডার, ফেভারিট প্রোগ্রাম লিস্টিং, প্যারেন্টাল কন্ট্রোল। আকাশ ডিটিএইচ’র এককালীন সংযোগ খরচ ৬ হাজার ৪৯৯ টাকা। সংযোগ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক এইচডি সেট টপ বক্স, গ্রাহকবান্ধব ও বহুমুখী ব্যবহার উপযোগী রিমোট কন্ট্রোল, তাপ ও বৃষ্টি প্রতিরোধী ইউনিভার্সাল কেইউ ব্যান্ড ডিশ এবং অন্যান্য অ্যাক্সেসরিজ। সীমিত সময়ের জন্য বিনামূল্যে ইনস্টলেশন এবং এক মাসের সাবস্ক্রিপশন পাওয়া যাবে। এছাড়া সার্বক্ষণিক ২৪/৭ গ্রাহক সেবার জন্য কল সেন্টার এবং পেশাদার ইনস্টলেশন ও বিক্রয় পরবর্তী সেবা নিশ্চিত করবে আকাশ।

বেক্সিমকো জানায়, বিশ্বে নিজস্ব স্যাটেলাইট থাকা ৫৭তম দেশ বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের পর বাণিজ্যিকভাবে এর ব্যবহার শুরু করতে যাচ্ছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স।এর মাধ্যমে দেশের ডিজিটাল অগ্রযাত্রার গৌরবময় সঙ্গী হলো বেক্সিমকো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ