Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

আসছে মৌসুমে বার্সার পরিকল্পনায় যারা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০১৯, ৭:৫৬ পিএম

ইউরোপিয়ান ফুটবলের মৌসুম প্রায় শেষ হতে চললো। ইতোমধ্যে ক্লাবগুলো আসছে মৌসুমে দল গঠন নিয়ে পরিকল্পনা শুরু করেছে। মাঠেও নেমে গেছে অনেকে। বসে নেই লা লিগা চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনাও। স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কার মতে, আসছে দলবদলের বাজারে ২৬৫ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে মাঠে নামবে কাতালার দলটি।
বার্সার মূল পরিকল্পনায় রয়েছেন ফ্রেঙ্কি ডি ইয়াং, মাতাইজি ডি লিট ও অঁতোয়ান গ্রিজম্যান। আয়াক্সের ডাচ মিডফিল্ডার ডি ইয়াংয়ের ন্যু ক্যাম্পের দলে যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। এজন্য বার্সাকে গুনতে হয়েছে ৭৫ মিলিয়ন ইউরো, শর্তসাপেক্ষে তার সঙ্গে যোগ হতে পারে আরো ১১ মিলিয়ন ইউরো। বাকি দুইজনের ব্যাপারটা এখনো ঝুলে রয়েছে। ডাচ ডিফেন্ডার ডি লিটকে পেতে ৭০ মিলিয়ন খরচ হতে পারে। ইতোমধ্যে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে পাঁচ বছরের সম্পর্ক ছেদ করার ঘোষণা দিয়েছেন গ্রিজম্যান। তবে বার্সায় যোগদানের ব্যাপারে এখনো কিছুই জানাননি। ফরাসি বিশ্বকাপজয়ী স্ট্রাইকারকে পেতে বাই আউট ক্লজের ১২০ মিলিয়ন ইউরো গুনতে হবে বার্সাকে।
কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দের পরিকল্পনায় রয়েছে রাইট ব্যাকে জর্ডি আলবার একজন বিকল্প খুঁজে বের করা। ডাচ গোলরক্ষক জেসপার সিলিসেনের ভালো একজন বদলিও পরিকল্পনার গুরুত্বপূর্ণ অংশ। অর্থ জোগাড়ের জন্য খেলোয়াড় বিক্রির পরিকল্পনাও করতে হচ্ছে ভালভার্দেকে।
মৌসুমজুড়ে বার্সা শিবির ছাড়ার ব্যাপারে একজনের নাম উচ্চারিত হয়েছে সবচেয়ে বেশি- ফিলিপ কুতিনহো। দলীয় রেকর্ড গড়ে লিভারপুল থেকে গত মৌসুমে ব্রাজিল মিডফিল্ডারকে দলে ভেড়ায় বার্সা। তাকে নিয়ে লিভারপুল-বার্সায় কম টানাটাটি হয়নি। সেই কুতিনহো বার্সায় এসে সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। এমনকি কাতালান সমর্থকদের দুয়োও শনুতে হয়েছে তাকে। যদিও ভালভার্দে বার বার বলেছেন, কুতিনহোকে ছাড়ার ইচ্ছা তাদের নেই।
এরপরও গুঞ্জন থেমে নেই। চেলসি থেকে রিয়াল মাদ্রিদে নাম লেখাতে যাচ্ছেন এডেন হ্যাজার্ড। বেলজিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের শূন্যস্থান পূনণে কুতিনহোর মত কাউকেই চাইবে চেলসি। অবশ্য খেলোয়াড় কেনা-বেচায় নিষেধাজ্ঞা থাকায় আসন্য দলবদলের বাজার থেকে কোনো খেলোয়াড় কিনতে পারবে না স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি।
স্যামুয়েল উমতিতি ও ইভান রাকিটিচের গায়ে তো বিক্রির ট্যাগ ঝুলিয়েই দিয়েছে বার্সা। ডি লিট দলে যোগ হলে ৪০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে উমতিতিকে ছেড়ে দিতে পারে বার্সা। যদিও হাটুর ইনজুরি কাটিয়ে ওঠা ফরাসি বিশ্বকাপজয়ী ডিফেন্ডারের বার্সার ছাড়ার কোনো ইচ্ছা নেই।
রাকিটিচের ব্যাপারটাও অনেকটা একই রকম। ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার দলে থাকতে চাইলেও বিক্রির জন্য তার গায়ে ৫০ মিলিয়ন ইউরোর ট্যাগ লাগিয়ে দিয়েছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন দলটি। তার ব্যাপারে সেরি আ চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস আগ্রহী বলে গুঞ্জন রয়েছে।
গত মৌসুমে ম্যালকমকে নিয়ে কম নাটক হয়নি রোমা আর বার্সার মধ্যে। শেষ পর্যন্ত সেই ব্রাজিলিয়ান মিডিফিল্ডারকেও বিক্রি করে দিতে পারে বার্সা। এছাড়া দুই মিডফিল্ডার আর্সেনালে ধারে খেলা ডেনিস সুয়ারেজ ও এভারটনে ধারে খেলা আন্দ্রে গোমেজও রয়েছেন বিক্রির পরিকল্পনায়।
রাইট ব্যাক নেলসন সেমেদোকেও বিক্রি করে দিতে পারে বার্সা। যদিও গত মৌসুমে ভালভার্দের দলে তাকে প্রায়ই দেখা গেছে। পর্তুগজি লেফট-ব্যাকের শূন্যস্থান পূরণের জন্য রয়েছেন সেনেগালের ২০ বছর বয়সী ডিফেন্ডার মুসা ওয়েগি। এই ভুমিকায় ভালভার্দের সবচেয়ে আস্থার নাম সার্জিও রবার্তো।
গোলরক্ষক সিলিসেনের গায়ে ৩০ মিলিয়ন ইউরোর ট্যাগ লাগালেও এখনও কোনো দল তার ব্যাপারে আগ্রহ দেখায়নি।
এছাড়া দল ছাড়ার ব্যাপারে আগ্রহ রয়েছে রাফিনহের। ইনজুরির কারণে মৌসুমের অধিকাংস সময় ২৬ বছর বয়সীকে কাটাতে হয়েছে দলের বাইরে। ব্রাজিল মিডফিল্ডারকে বিক্রি করে বড় অঙ্কের লভ্যংশ যোগ হতে পারে বার্সার আয়ের তালিকায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন