Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লয়াইংয়ের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। দেশটিতে রোহিঙ্গা গণহত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে চলতি সপ্তাহেই তার বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। খবর দ্য গার্ডিয়ান।
২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাদের হাত থেকে প্রাণে বাঁচতে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা রাখাইন রাজ্য ছেড়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। রোহিঙ্গাদের উচ্ছেদ, নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণের মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে সেনাপ্রধান মিন অং হ্লয়াইংয়ের নাম এসেছে বিভিন্ন তদন্ত প্রতিবেদনে। তার বিরুদ্ধে সামজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগও রয়েছে। গত বছর জাতিসংঘ গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের জেনারেলদের বিচারের মুখোমুখি করার আহŸান জানানোর পর এই সেনাপ্রধানের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কর্তৃপক্ষ ফেসবুক। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বিভিন্ন সময় দেওয়া পোস্টে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিক হিসেবে অস্বীকার করে তাদেরকে ‘বাঙালি’ বলে আখ্যা দিতেন সেনাপ্রধান।
গত সপ্তাহে বার্মিজ রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন ইউকে’র সভাপতি তুন কিনহ সিলিকন ভ্যালিতে টুইটারের নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ওই সময় তিনি সেনাপ্রধানের টুইটার অ্যাকাউন্টের বন্ধের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। অবশ্য গত এক বছর ধরে মিন অং হ্লয়াইং তার টুইটার অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করছেন না। তবে এরপরও টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়াকে বড় বিজয় বলে আখ্যা দিয়েছেন তুন কিনহ।

 



 

Show all comments
  • Monsur Alam ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৪ এএম says : 0
    আসলে জাতিসংঘ হল বড় দাদাদের অবৈধ কর্মকান্ডের স্বীকৃতি দেওয়ার সংস্থা,
    Total Reply(0) Reply
  • Feruz Ahammad ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
    আমি ছোট্ট একটা আবদার জানাচ্ছি,এই রোহিঙ্গা হত্যা প্রধানকে রোহিঙ্গাদের হাতে তুলে দেওয়া হউক তাহলে তার লাইফ একাউন্টও বাতিল হয়ে যাবে পরে বুঝবে একাউন্ট খুলতে কাকে প্রয়োজন।
    Total Reply(0) Reply
  • Manik Netrakona ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
    আমাদের উচিৎ রোহিঙ্গাদের হাতে অস্ত্র দিয়ে ওদের রাখাইন রাজ্য স্বাধীন করতে পাঠিয়ে দেয়া।
    Total Reply(0) Reply
  • A.k. Azad ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
    Good news
    Total Reply(0) Reply
  • হাদী উজ্জামান ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৫ এএম says : 0
    ওরতো জীবনের বৈধতা নেই টুইট দিয়ে হবে কী?
    Total Reply(0) Reply
  • Ahtashum Sagar ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
    He biggest terrorists.
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abu Taleb Mia ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
    হু হু হু মায়ানমার এবার না খেয়ে মারা যাবে ।
    Total Reply(0) Reply
  • M.A. Jinnah ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
    Need very high punishment..
    Total Reply(0) Reply
  • Sanjoy Kumar ১৭ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
    তাতে কি এমন ক্ষতি হয়েছে উনার। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে ভালো হত!
    Total Reply(0) Reply
  • Rashie Ahmed ১৭ মে, ২০১৯, ৪:২০ এএম says : 0
    Tar dom bondo kore deoa jaruri.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টুইটার

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন