Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

কাওরানবাজারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বাজার- মনিটরিংয়ে ডিএনসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৯, ১২:১৯ এএম

 ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) কারওয়ান বাজার, ফারমগেট, ইন্দিরা রোড, বনানী ও নতুন বাজারের বিভিন্ন এলাকায় দুটি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় বিভিন্ন অপরাধে আগোরা সুপার শপ ও প্রিন্স হোটেলসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে চার লাখ টাকা জারিমানা করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার ডিএনসিসি’র অঞ্চল-৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মীর নাহিদ আহসান ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত এই জরিমানা করে।
ডিএনসিসি’র অঞ্চল-৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মীর নাহিদ আহসান গতকাল সকাল সাড়ে ১০টা থেকে কারওয়ান বাজার, ফার্মগেট ও ইন্দিরা রোড এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।
এসময় কারওয়ান বাজারে রাস্তা দখল করে থাকা প্রায় দুই শতাধিক অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়। এছাড়া ফার্মগেট ওভারব্রিজ থেকে ইন্দিরা রোডে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে রাখা আরো প্রায় দুই শতাধিক অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়। ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী ইন্দিরা রোডে পঁচা সবজি ও ফল রাখা এবং মুরগি ও গরুর গোশত একই ফ্রিজে রাখার অপরাধে আগোরাকে এখ লাখ এবং অপরিচ্ছন্ন-অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রান্না করার অপরাধে প্রিন্স হোটেলকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
অন্যদিকে ডিএনসিসির আরেক নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার গতকার দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বনানী ও নতুন বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। বনানীতে কাঁচা মরিচের দাম বেশি রাখা এবং মূল্য তালিকা না রাখার অপরাধে ৫টি দোকানে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী সর্বমোট ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া নতুন বাজার এলাকায় গোশতের দোকানে মূল্যতালিকা না থাকায় ২০ হাজার টাকা করে ৪০ হাজার টাকা এবং একটি মুদি দোকানে মূল্যতালিকা না থাকায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ডিএনসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালত ও অবৈধ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন