Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

এবার টুইটারেও নিষিদ্ধ মিয়ানমার সেনাপ্রধান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৯, ২:৪৭ পিএম

মিয়ানমার সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের টুইটার একাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এর আগে তার ফেসবুক একাউন্ট ব্যান করে দিয়েছিল ফেসবুক। ইন্টারনেটে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ তুলে এবার তার টুইটার একাউন্টও ব্যান করা হল। এ খবর দিয়েছে আরএফএ।

মিন অং হ্লাইং কে বলা হয়ে থাকে ২০১৭ সালে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিচালনা করা গণহত্যার প্রধান পরিকল্পনাকারী। ওই ঘটনার পরই প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। টুইটারে থাকা তার @sgminaunghlaing নামের একাউন্টটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এর ৯ মাস আগে আরেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান ফেসবুকও মিন অং কে ব্যান করেছিল। তার বিরুদ্ধে ফেসবুক মিয়ানমারের ক্ষুদ্র জাতিগুলোর বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ এনেছিল।

এর আগে বার্মিজ রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় টুইটারের পরিচালকদের কাছে মিন অং এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। তাতে সংগঠনটি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ঘৃণাবাচক কথা বলার অভিযোগ আনেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই মিন অং এর টুইটার ব্যান করা হয়। বার্মিজ রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন এর প্রধান তুন খিন দ্য গার্ডিয়ানকে বলেন, প্রোপাগান্ডা ছড়ানোর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ফেসবুকের মত টুইটারও মিন অং হ্লাইং এর একাউন্ট নিষিদ্ধ করেছে। এটি রোহিঙ্গাদের জন্য বিশাল জয়। রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রধান পরিকল্পনাকারী এই মিন অং হ্লাইং। এ বিষয়ে টুইটারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাদের মুখপাত্র জানায়, নিরাপত্তা ও গোপনীয়তার স্বার্থে আমরা কোনো নির্দিষ্ট ব্যাক্তির বিষয়ে কথা বলতে পারি না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন