Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

পাবনায় প্রভাষক মারধরের মামলায় ছাত্রলীগের সম্মান রক্ষার্থে সভাপতি জুন্নুনের আত্মসমর্পণ

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০১৯, ৩:৩০ পিএম

পাবনার সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমানকে মারধরের ঘটনায় কলেজ ছাত্রলীগের সম্মান বাঁচাতে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি শামসুদ্দিন জুন্নুন স্বেচ্ছায় পুলিশেরে কাছে আজ শনিবার আত্মসমর্পণ করলে তাঁকে গ্রেফতার দেখিয়ে পাবনার বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের মাধ্যমে জেলা হাজাতে প্রেরণ করা হয়।
শনিবার সকালে পাবনা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন, সরকারি শহীদ কলেজ ছাত্রলীগরে সভাপতি শামমুদ্দিন জুন্নুন। তিনি এই মামলার এজহারনামীয় অভিযুক্ত নন।
পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস(প্রশাসন, পুলিশ সুপার পদোন্নতি প্রাপ্ত) সাংবাদিকদের এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, প্রভাষক মাসুদুর রহমানকে মারধরের মামলায় শামসুদ্দিন জুন্নুন এজাহার নামীয় আসামী না হলেও ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুল আহাদ বাবু জানান, ছাত্রলীগ নেতা জুন্নুন প্রভাষক মাসুদুর রহমানকে লাঞ্ছিত করার মামলার আসামী নন । কিন্তু শিক্ষক সমাজ জুন্নুনকে নির্দেশদাতা হিসেবে অভিযুক্ত করে তাঁকে গ্রেফতারে দাবী জানান, শিক্ষকদের অনুভূতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং ছাত্রলীগের সম্মান রক্ষার্থে আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ তাকে আইনের কাছে আত্মসমপর্ণ করতে বললে, জুন্নুন এই নির্দেশনা মান্য করেছেন।
প্রসঙ্গত: গত ১২ মে পরীক্ষায় অসাদুপায় অবলম্বনে বাঁধা দেওয়ায় সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমানকে কলেজের মূল ফটকে মারধোর উচ্ছৃংখল কতিপয় যুবক।
এ ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে নিন্দার ঝড় ওঠে। কলেজের অধ্যক্ষ ২ জনকে এজাহারনামীয় আসামী করে ৩-৪ জনকে অজ্ঞাত করে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইতোমধ্যে এজাহারনামীয় ২ জনকে গ্রেফতার করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাবনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ