Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

কৃষক ক্ষেতে আগুন দিলেও সরকার নির্বিকার

মানববন্ধনে শামসুজ্জামান দুদু

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০১৯, ১২:২৫ এএম

ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে কৃষক তার ক্ষেতে আগুন দিলেও সরকার নির্বিকার ভূমিকা পালন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষকদলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু। তিনি বলেন, বাংলাদেশে এখন ভয়ঙ্কর একটি শাসন চলছে। যে শাসনে এদেশের কৃষক-শ্রমিক-মেহনতী মানুষ, ছাত্র-যুব-নারী কেউ নিরাপদ নয়, কারোর পক্ষেই স্বাভাবিক জীবনযাপন করা সম্ভব হচ্ছে না। গত এক শতাব্দীতে লক্ষ্য করবেন কৃষক তার উৎপাদিত ধানে আগুন দিয়েছে এ রকম ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু এই সরকারের আমলে ঘটেছে। কি ভয়ঙ্কর! কৃষক তার ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে ক্ষেতে আগুন দিচ্ছে আর সরকার নির্বিকার ভূমিকা পালন করছে। গতকাল (রোববার) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী কৃষকদলের উদ্যোগে কৃষকের ধানসহ সকল প্রকার ফসলের ন্যায্যমূল্যের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
শামসুজ্জামান দুদু বলেন, কৃষিমন্ত্রীর বাড়ি টাঙ্গাইল, সেই টাঙ্গাইলের কৃষকরা নিজের ধান ক্ষেতে আগুন দিয়েছে। কৃষিমন্ত্রী কিছু করেন নাই, প্রধানমন্ত্রী কিছুই করেন নাই। কারণ হলো, এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার না। এই সরকার অবৈধ সরকার বলেই জনগণের কাছে, কৃষকদের কাছে কোন কৈফত তারা দিতে চায় না।
নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে দুদু বলেন, আমাদেরকে ঘুরে দাঁড়াতে হবে। এই স্বৈরতান্ত্রিক একনায়কতন্ত্রের সরকারকে বুঝিয়ে দিতে হবে বাংলাদেশের জন্ম মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছেন শহীদ জিয়াউর রহমান। লাখ লাখ শহীদ হয়েছে, মা বোন ইজ্জত দিয়েছে স্বাধীনতার জন্য। গণতন্ত্রের প্রশ্নে এই দেশে লুটপাট দুর্নীতি একনায়কতন্ত্র স্বৈরতন্ত্র টিকবে না এটাই বুঝিয়ে দিতে হবে। আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে কৃষক-শ্রমিক-মেহনতী মানুষ সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলন করতে হবে।
আয়োজক সংগঠনের যুগ্ম-আহ্বায়ক তকদির হোসেন মোহাম্মদ জসিমের সভাপতিত্বে এবং সদস্য এসকে সাদীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, কৃষক দলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, যুগ্ম-আহ্বায়ক সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, জামাল উদ্দিন খান মিলন, সদস্য আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, মাইনুল ইসলাম, মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার খলিলুর রহমান ইব্রাহিমকে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, এম জাহাঙ্গীর আলম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ