Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ফরিদগঞ্জে গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁদপুর থেকে | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০১৯, ৪:০৮ পিএম

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ গৃহবধুকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ করেছে নিহতের পরিবার। এ ঘটনায় ফরিদগঞ্জ থানায় ২জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে নিহতের বাবা। পুলিশ নিহতের শ্বাশুরীকে আটক করেছে। অপরজন নিহতের স্বামী মাহফুজুর রহমান সৌদি প্রবাসী।
নিহত সালাম বেগম (২৪) উপজেলার গুপ্টি ইউনিয়নের ঘনিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসি মাহফুজুর রহমান স্ত্রী।
থানা সূত্র জানায়, রোববার (১৯ মে) বিকেলে ঘনিয়া নিজ বাড়ী থেকে হাতের রগ কাটা এবং গলায় ওড়না পেচিয়ে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় সালমা বেগমের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
সালমার পিতা মহসিন অভিযোগ করে বলেন, তার মেয়েকে হাতের রগ কেটে হত্যা করে ঘরের আড়ার সাথে লাশ ঝুলিয়ে আত্মহত্যার প্রচারণা চালাচ্ছে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন। পুলিশ এই ঘটনায় নিহত সালমার শ্বাশুরী আলিমুননেছাকে আটক করেছে।
জানা গেছে, ঘনিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসীর মাহফুজুর রহমানের সাথে পাশ্ববর্তী হুগলি গ্রামের মহসিন মিয়ার মেয়ে সালমার কয়েক বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের মাহমুদ নামে দুই বছর বয়সী এক সন্তান রয়েছে। রোববার দুপুরে সালমাকে তার শশুড় বাড়ি ঘনিয়া গ্রামের পতিশ বাড়ির ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেচানো অবস্থায় ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় লোকজন। এ সময় তার হাতের রগ কাটা দেখতে পায়। ঘরের মেঝেতে রক্তের ছাপ দেখা যায়।

খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) অহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সালমার লাশ উদ্ধার করে ।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত জানান, সোমবার সকালে সালাম বেগমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তার শ্বাশুরীকে কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করতে তাকে রিমান্ড চাওয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ