Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

মাদারীপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টায় পুলিশ গ্রেফতার

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৯, ২:৪৪ পিএম

মাদারীপুর শহরের টিবি ক্লিনিক রোড এলাকার এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার নাম মোকতার হোসেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়। এর আগে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তাকে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়।

জানা যায়, মাদারীপুর পুলিশ লাইনে কর্মরত কনস্টেবল মোকতার হোসেন শহরের টিবি ক্লিনিক রোড এলাকায় একটি বাসায় স্ত্রীকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন। সপ্তাহখানেক আগে মোকতার তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। রবিবার রাতে প্রতিবেশী ওই স্কুলছাত্রীকে ঘরের মধ্যে ডেকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয় মোকতার। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা দরজা খুলতে বললে সে মেয়েটিকে ভেন্টিলেটর দিয়ে জোরপূর্বক বাইরে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে মেয়েটি আহত হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী জানায়, তাকে পুলিশ সদস্য মোকতার হোসেন ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। বাধা দিলে তাকে মারধর করা হয়। বাইরে থেকে লোকজনের ডাকাডাকি টের পেয়ে ভেন্টিলেটর দিয়ে জোর করে তাকে ধাক্কা দিয়ে বাইরে ফেলে দেয়। এতে তার পায়ের হাড় ভেঙে যায়।
মাদারীপুর সদর হাসাপাতালের আরএমও শশাঙ্ক চন্দ্র ঘোষ বলেন, ‘ওই স্কুলছাত্রীর পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। ঠিক হতে তাকে দুই থেকে আড়াই মাস সময় লাগবে।’
মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) বদরুল আলম বলেন, ‘অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল মোকতার হোসেনকে তার দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এই ঘটনায় দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। এদিকে মাদারীপুর সদর থানায় মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত ওই পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ