Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

প্রয়াত রাজীবকে নিয়ে ডিগবাজি মোদির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৯, ৪:০৩ পিএম

নির্বাচনী প্রচার পর্বে কংগ্রেসকে নিশানা করতে গিয়ে প্রয়াত রাজীব গান্ধীকে একাধিক বার আক্রমণ করেছেন। কখনও তার আমলে হওয়া বফর্স দুর্নীতির উল্লেখ করেছেন। কখনও বা সেনার যুদ্ধজাহাজকে ব্যক্তিগত ট্যাক্সির মতো ব্যবহারের অভিযোগ এনেছেন। আবার কখনও তাকে ‘ভ্রষ্টাচারী নম্বর ওয়ান’-এর তকমা দিয়েছেন। তা নিয়ে কংগ্রেস-সহ বিরোধীদের তীব্র সমালোচনার মুখেও পড়েছেন। তবে সে সব রাজনৈতিক তিক্ততা সরিয়ে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীবকে তার ২৮তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
মঙ্গলবার সকালে একটি সংক্ষিপ্ত টুইটবার্তায় মোদি লিখেছেন, ‘প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শ্রী রাজীব গান্ধীকে তার মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধার্ঘ।’
রোবরই শেষ হয়েছে সাত দফা জুড়ে চলা লোকসভা নির্বাচন। তবে নির্বাচনী প্রচারে রাজীব-প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদির আক্রমণের তীব্রতা এখনও তাজা রয়েছে কংগ্রেসের কাছে। নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে কংগ্রেসকে নিশানা করতে গিয়ে বহু বার প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন মোদি। উত্তরপ্রদেশের একটি জনসভায় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর উদ্দেশে বলেছেন, ‘আপনার বাবা তার কাছের মানুষদের জন্য ‘মিস্টার ক্লিন’ হতে পারেন। কিন্তু, তার জীবন শেষ হয়েছে ভ্রষ্টাচারী নম্বর ওয়ান হয়ে।’ আবার দিল্লির রামলীলা ময়দানের সভায় মোদির দাবি, ‘রাজীব গান্ধী প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন সমুদ্র নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আইএনএস-বিরাট যুদ্ধজাহাজে গোটা পরিবার নিয়ে একটি নির্জন দ্বীপে দশ দিনের ছুটি কাটাতে যান। নিয়ে যান শ্বশুরবাড়ির লোকেদেরও। যুদ্ধজাহাজকে ট্যাক্সি হিসেবে ব্যবহার করেন তারা!’
এ ধরনের আক্রমণের পর প্রশ্ন উঠেছে মোদির রাজনৈতিক সৌজন্যবোধ নিয়ে। কংগ্রেস ছাড়াও তার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির মতো নেতানেত্রী। মোদির মন্তব্যের বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন কংগ্রেসের সুস্মিতা দেব। সমালোচনা করেছেন শিক্ষা জগতের প্রতিনিধিরাও। গোটা বিষয়ে তিক্ততা বেড়েছে শাসক ও বিরোধীদের মধ্যে। তবে সে সব কটাক্ষ-অভিযোগ সরিয়ে প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীবের মৃত্যুবার্ষিকীতে সৌজন্যমাফিক শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মোদি

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ