Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

গুজবে কান না দিয়ে পাহারা দিতে বললেন প্রিয়াঙ্কা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৯, ৪:০৪ পিএম

ভোটে না দাঁড়ালেও প্রচারে ছিলেন আগাগোড়াই। এ বার ভোট পরবর্তী কর্মকাণ্ডেও সক্রিয় হয়ে উঠলেন প্রিয়াঙ্কা। বুথফেরত সমীক্ষার ফল সামনে আসার পর মুষড়ে পড়া কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের চাঙ্গা করতে অডিয়ো বার্তা পাঠালেন দলের সাধারণ সম্পাদক। সেখানে বুথফেরত সমীক্ষার গুজবে কান না দিতে দলীয় কর্মীদের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।
সোমবারই এই অডিয়ো বার্তা প্রকাশ করেছেন প্রিয়াঙ্কা। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘আমার প্রিয় কংগ্রেস কর্মী, বোন এবং ভাইয়েরা, গুজবে কান দেবেন না এবং বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফলে হতাশ হবেন না। আপনাদের মনোবল ভেঙে দিতেই এই কৌশল নেওয়া হয়েছে। এই সময় সতর্ক থাকার সময়। ভোটগণনা কেন্দ্র এবং স্ট্রং রুমের দিকে সতর্ক নজর রাখুন। আমাদের চেষ্টার ফল মিলবেই, এইটুকু আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে।’
গত রোববার শেষ দফার ভোটগ্রহণের পরই বুথফেরত সমীক্ষার ফল সামনে আনে বিভিন্ন সমীক্ষা সংস্থা। প্রায় প্রতিটি সমীক্ষারই ইঙ্গিত, সরকার গড়ার লক্ষ্যে বাকিদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। সদ্য ক্ষমতায় আসা রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং ছত্তীসগঢ়েও কংগ্রেসের ভোটব্যাঙ্কে থাবা বসিয়েছে বিজেপি, এমনটাই বলা হয়েছে বুথফেরত সমীক্ষায়। যদিও দলীয় কর্মী-সমর্থকদের চাঙ্গা করতে সেই বুথফেরত সমীক্ষাকেই গুজব বলে ওড়ালেন প্রিয়াঙ্কা।
এর আগে বুথফেরত সমীক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তিনিও বুথফেরত সমীক্ষাকে ‘গসিপ’ বলে তোপ দেগেছিলেন। একই সঙ্গে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে বলেছিলেন, ‘আমি এই বুথফেরত সমীক্ষার গসিপে বিশ্বাস করি না। গসিপ ছড়িয়ে দিয়ে হাজার হাজার ইভিএম পাল্টে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। আমি সমস্ত বিরোধী দলগুলিকে ঐক্যবদ্ধ, শক্তিশালী এবং সাহসী থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। এই লড়াই আমরা সবাই একসঙ্গে লড়ব।’ দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে অনেকটা তার দেখানো পথেই এবার হাঁটলেন প্রিয়াঙ্কা। সূত্র: এনডিটিভি।



 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২১ মে, ২০১৯, ৯:৪৯ পিএম says : 0
    মুদির হইবে ভরাডুবি, যতই করে না কেন ভোট চুরি। ভভোট চুন্নি ধিক্কার। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন