Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

বিচারাধীন মামলার সংবাদ পরিবেশনের ব্যাখ্যা দিলেন সুপ্রিম কোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৯, ৮:১৬ পিএম

সুপ্রিম কোর্ট সবসময় সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। তবে আদালতের ভাবমূর্তি ও মর্যাদা ক্ষুণœ হয় এবং বিচারকাজ প্রভাবিত করে-এমন সংবাদ পরিবেশন ও প্রচার প্রত্যাশিত নয় বলে নতুন এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। বিচারাধীন মামলার সংবাদ প্রকাশের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের জারি করা বিজ্ঞপ্তি স্পষ্ট করতে মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ড. জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়।
গত সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সঙ্গে তার চেম্বারে সাক্ষাৎ করেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক। সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমার মনে হয় আপনারা খুব শিগগিরই এ বিষয়ে একটি ব্যাখ্যা পাবেন। তার এই বক্তব্যের পরদিনই সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন নতুন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো।
সুপ্রিম কোর্টের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সুপ্রিম কোর্ট সবসময় সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। আদালতের ভাবমূর্তি ও মর্যাদা ক্ষুণœ হয় এবং বিচারকাজ প্রভাবিত হয়- এমন সংবাদ পরিবেশন ও প্রচার প্রত্যাশিত নয়। এ অবস্থায় গত ১৬ মে জারি করা ২৪৭/২০১৯ নম্বর বিজ্ঞপ্তিটি স্পষ্ট করা হলো এবং বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সবাইকে অবহিত করা হলো।
গত ১৬ মে হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানী স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, ইদানিং কোনো কোনো ইলেকট্রনিক মিডিয়া তাদের চ্যানেলে এবং কোনো কোনো প্রিন্ট মিডিয়া তাদের পত্রিকায় বিচারাধীন মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করছে, যা একেবারেই অনভিপ্রেত। এমতাবস্থায়, বিচারাধীন কোনো বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করা হতে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।
ওই বিজ্ঞপ্তির প্রতিবাদ জানিয়ে ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, সুপ্রিম কোর্ট ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) বিজ্ঞপ্তিটি প্রত্যাহারের দাবি জানায়। এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী একাধিক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, সাব-জুডিস (বিচারাধীন মামলা) কথাটার একটা অর্থ আছে। সাব-জুডিস হচ্ছে- এমন মামলা,যেটা বিচারাধীন আছে। কিন্তু বিচার কার্যক্রম চলছে না। মামলা যেটা বিচারাধীন আছে, কিন্তু বিচার কার্যক্রম চলছে না- এমন মামলার ব্যাপারে মতামত দেয়ার বিষয়টিই বলেছেন সুপ্রিম কোর্ট। তারা বলেছেন, এই ব্যাপারে মতামত না দিতে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুপ্রিম কোর্ট

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২ জানুয়ারি, ২০১৯
৫ ডিসেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন