Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ঈদের ছুটিতে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখার নির্দেশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০১৯, ৫:৫০ পিএম

ঈদুল ফিতরের ছুটিতে গ্রাহকদের সুবিধার্থে সব ব্যাংকের এটিএম (অটোমেটেড টেলার মেশিন) বুথে পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পাশাপাশি এটিএম ও পয়েন্ট অব সেল (পিওএস) নেটওয়ার্ক সার্বক্ষণিক সচল থাকার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে।

এতে বলা হয়, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কেনাকাটা এবং উৎসবকালীন সময়ে ব্যাংকের শাখা বন্ধ থাকায় গ্রাহকরা অধিকহারে এটিএম বুথ, পয়েন্ট অব সেল এবং ই-পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে লেনদেন সম্পন্ন করে। এসব কার্ডভিত্তিক ইলেকট্রনিক লেনদেনে গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য ব্যাংকগুলোকে পাঁচটি পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এগুলো হলো-এটিএম বুথে পর্যাপ্ত নগদ টাকা সরবরাহ করা, এটিএম বুথে সার্বক্ষণিক পাহার‍াদের সর্তকাবস্থান ও অন্যান্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, এটিএম ও পিওএস মেশিনে সার্বক্ষণিক নেটওয়ার্ক চালু রাখা, বন্ধ বা অচল এটিএম বুথের সামনে নোটিশ টানানোর ব্যবস্থা করা, কোনো ব্যাংকের সব এটিএম ও পিওএস সেবা অনিবার্য কারণে বন্ধ থাকলে তাৎক্ষণিকভাবে গ্রাহকদের অবহিত করা।

এছাড়াও অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে-ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে দুই স্তরের সিকিউরিটি ভেরিফাইড পিন কোড নিশ্চিত করা, মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকেও ছুটির সময়ে ব্যাংকসমূহের উপরিউক্ত সেবার আওতার সিস্টেমসমূহের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ ঝুঁকি মোকাবেলা করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। যেকোনো অঙ্কের লেনদেনের তথ্য এসএমএস অ্যালার্ট সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহককে অবহিত করতে হবে। ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সবধরনের পরিশোধ সেবার ক্ষেত্রে গ্রাহকদের সতর্কতা অবলম্বনের জন্য গণমাধ্যমে বিভিন্ন রকম প্রচার-প্রচারণার ব্যবস্থা করতে হবে। সব লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনো অবস্থাতেই যেন গ্রাহকরা হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টি নিশ্চিত করা ও কাস্টমার সার্ভিস সেন্টার চালু রাখতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাংলাদেশ ব্যাংক


আরও
আরও পড়ুন