Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাচ্ছে উত্তর প্রদেশের আতঙ্কিত মুসলিমরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ আবারো ক্ষমতায় আসায় ভারতের উত্তরপ্রদেশে কট্টর হিন্দুত্ববাদীদের আধিপত্য চরমে। তাদের নানাবিধ প্রভাবে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাচ্ছেন অনেক মুসলিম জনগোষ্ঠী। উত্তর প্রদেশের নয়াবান গ্রামে মোট ৪ হাজার মানুষের মধ্যে ৪০০ জন মুসলিম। গত দুই বছরে তাদের মধ্যে প্রায় এক ডজন ঘরবাড়ি ছেড়ে চলে গেছেন অন্যত্র। আরো অনেকে গ্রাম ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন। তবে সামর্থ্যরে অভাবে পারছেন না বলে তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন। এর মধ্যে গত বছরের শেষে গরু নিয়ে সহিংসতার ক্ষত এখনো তাদের মধ্যে দগদগে হয়ে রয়েছে। গত নভেম্বরে নয়াবানে গরু জবাইয়ের অভিযোগে সহিংসতা জড়ায় হিন্দুরা। পুলিশ গরু জবাই বন্ধ করতে পারেনি, এমন অভিযোগে মহাসড়ক বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখায় তারা। সে সময় সংঘর্ষে এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ দুইজন নিহত হয়েছিলেন। এরপর ওই ঘটনায় মামলা হয়, বিনা অপরাধে জেল খেটেছেন অনেক মুসলিম। ওই সংঘর্ষের জের এখনো রয়েছে বলে মনে করছেন মুসলিমরা। ২০১৭ সালে যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে সেখানকার পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে। পরের রমজানে মাদ্রাসাকেন্দ্রিক একটি মসজিদে আজান দেওয়া বন্ধ করে দেয় কট্টরপন্থি হিন্দুরা। দীর্ঘ সময় ধরে চললেও আজান দেয়া বন্ধ করে দিতে হয় মুসলিমদের। মুসলিম বাসিন্দা আয়েশা বলেন, ‘এখন এখানে আমরা ধর্মীয় বিষয় প্রকাশ করতে পারি না। তারা (হিন্দুরা) যা ইচ্ছা তা করতে পারে।’ গরু জবাইয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৬ দিন জেল খেটেছেন ৩৮ বছর বয়সি শরফুদ্দিন সাইফি। যদিও পরে এর কোনো প্রমাণ পায়নি পুলিশ। এখন হিন্দুরা তার কাপড়ের দোকান এড়িয়ে চলেন। বিক্রি কমা আর মামলার পেছনে টাকা খরচ হওয়ায় দোকানে মালামাল তুলতে পারছেন না সাইফি। ছেলেকে ভালো স্কুল থেকে সরিয়ে আনতে হয়েছে তাকে। উত্তর প্রদেশের নয়াবান ছেড়ে দিল্লির নিকটবর্তী মাসুরিতে চলে গেছেন কাঠমিস্ত্রী জব্বার আলী। এক সময়ের এই সউদী প্রবাসী সেখানে একটি বাড়ি কিনেছেন। তিনি রয়টার্সকে বলেন, ‘যদি হিন্দুরা অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত পুলিশকে হত্যা করতে পারে, তাহলে আমরা মুসলিমরা কোন ছাড়?’ রাজধানী নতুন দিল্লিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চলেছেন ওই গ্রামের বাসিন্দা, ২২ বছর বয়সি জুনাইদ। আগে হিন্দু প্রতিবেশীদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলার কথা এখনো মনে পড়ে তার। ‘আমরা যখন ছোট ছিলাম তখন হিন্দু-মুসলিম একসঙ্গে খেলতাম- বিশেষ করে ক্রিকেট। আমি অনেক খেলেছি। কিন্তু গত একবছরে আমরা একসঙ্গে খেলিনি,’ রয়টার্সকে বলেন জুনাইদ। হিন্দুত্ববাদের সেøাগান উচ্চকিত করে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন নরেন্দ্র মোদি। এরপর ২০১৭ সালে রাজ্যের ক্ষমতায় আসেন হিন্দু পুরোহিত যোগী আদিত্যনাথ। আগে স¤প্রীতি থাকলেও এখন তাদের প্রভাবে এলাকার স¤প্রীতি একেবারেই নষ্ট হয়েছে বলে মনে করছেন নয়াবানের মুসলিমরা। ‘মোদি আর যোগী সব শেষ করে দিয়েছে। তাদের প্রধান অ্যাজেন্ডাই হিন্দু-মুসলিম বিভক্তি,’ রয়টার্সকে বলেছেন নয়াবানের বাসিন্দা গুলফাম আলী। লোকসভা নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে ‘এগিয়ে’ রয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। বিজেপি আবার ক্ষমতায় আসলে পরিস্থিতি আরো বাজে হতে পারে বলে শঙ্কায় নয়াবানের মুসলিমরা। ঘরবাড়ি ছাড়ার অভিযোগ মুসলিমরা করলেও কোনো ধরনের আধিপত্যের কথা অস্বীকার করেছে বিজেপি। দলের মুখপাত্র গোপাল কৃষ্ণ আগারওয়াল বলেন, ‘বিজেপির সময়ে কোনো দাঙ্গা হয়নি। অপরাধমূলক ঘটনার সঙ্গে হিন্দু-মুসলিমের বিষয় মেলানোটা ভুল হবে।’ বিরোধী দলগুলো সা¤প্রদায়িক রাজনীতি করার চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। অনেকের মনে এলাকা ছাড়ার প্রবণতা থাকলেও কোনো কোনো মুসলিম বলছেন লড়াই চালানোর কথা। তাদের মতো একজন ৪২ বছর বয়সী আয়াস মোহাম্মদ। নিকটবর্তী শহরে এই টাইলসের দোকানি রয়টার্সকে বলেন, ‘আমি লড়াই চালিয়ে যাব। আমি ভীত নই। তবে, মোদি আবার ক্ষমতায় এলে অনেকের জন্য এখানে থাকা কঠিন হয়ে যাবে।’ ডিডবিøউ, ইন্ডিয়া টুডে।



 

Show all comments
  • Sharif Miazi ২৪ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    বাংলাদেশে কোন হিন্দু নির্যাতিত হলে ভারত উদ্বেগ জানায় ঠিক কিন্তু ভারতে কোন মুসলিম নির্যাতিত হলে বাংলাদেশ উদ্বেগ জানায় না কেন?
    Total Reply(0) Reply
  • এম এম মিঠু ২৪ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    শুরু হয়ে গেছে মুসলিম দমন
    Total Reply(0) Reply
  • Sharif Miazi ২৪ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    বাংলাদেশ সরকার ভারত সরকারকে কিছু বলছে না কেন
    Total Reply(0) Reply
  • Riaj Raju ২৪ মে, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    আর বাংলাদেশের হিন্দুরা অনেক আরাম আয়েশে আছে,এটাই হিন্দু আর মুসলিমের মাঝে তফাৎ
    Total Reply(1) Reply
    • Amir ২৪ মে, ২০১৯, ৯:০০ এএম says : 0
      আমাদের লোকজন কম শিক্ষিত হলেও স্বশিক্ষিত, শান্তিতে বিশ্বাস করি!
  • Showkot Ali ২৪ মে, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    আল্লাহ সহায় হোন
    Total Reply(0) Reply
  • Nazmus Sakib ২৪ মে, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    আহা তারা নাকি অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী!!
    Total Reply(0) Reply
  • Mahmudul Hasan ২৪ মে, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 0
    আল্লাহ সকল মুসলমানদের হেফাজত করো
    Total Reply(0) Reply
  • Alaudin Alo ২৪ মে, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 0
    আল্লাহর সকল মুসলমানদের প্রতি সহায় হোন...আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Nurul Islam ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৪৯ এএম says : 0
    মোদিরা সব সময়ই অবুঝ হয়। ...
    Total Reply(0) Reply
  • nazmul ২৪ মে, ২০১৯, ৫:১৬ এএম says : 0
    Nijeder amal thik kori r dawater mehonot kori.shob thik kore diben Allah...
    Total Reply(0) Reply
  • আব্দুর রহিম ২৪ মে, ২০১৯, ১১:৪৪ পিএম says : 0
    আমাদের মা জননী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনি দয়া করে ওদেরকে আশ্রয় দিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Anisur Rahman ২৪ মে, ২০১৯, ১২:৩২ পিএম says : 0
    আল্লাহ সকল মুসলিমদের হেফাজত করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Abdur Rahman ২৪ মে, ২০১৯, ৮:৪৬ এএম says : 0
    Allah rokkha korun ai jalimder hat theke osohay muslim vai bonder.Ar karo kase besar diye lave nai.Bisarer malik akmatro Allah.
    Total Reply(0) Reply
  • শিহাব ২৫ মে, ২০১৯, ১১:৫৪ এএম says : 0
    নিরযাতিত মুসলমানদের পাশে দাড়ান বিশ্বের মুসলমানরা, মুসলমানরা কাউকে নিরযাতন করে না কিন্তু নিরযাতিত হচ্ছে, বাংলাদেশের হিন্দুদের ত মুসলমানরা নিরযাতন করে না, এটাই মনে হয় মুসলিম আর হিন্দু মধ্যে পারথক্য
    Total Reply(1) Reply
    • raihan ২৫ মে, ২০১৯, ৬:০৩ পিএম says : 0
      ঠিক।
  • সিরাজুল হক ২৬ মে, ২০১৯, ১:১৭ পিএম says : 0
    আমাদের দেশে আমরা সবাই বাংলাদেশি একানে আমরা মানুষের মত মানুষ .........র মত কমেন্ট করবেন না
    Total Reply(0) Reply
  • Al Amin Antu ২৮ মে, ২০১৯, ৬:৩৫ এএম says : 0
    তীভ্র নিন্দা রইল ভরতের জন্য তীব্র নিন্দা জানাই নরেন্দ্রমোদী কে -ছি ছি ছি এত নিকৃষ্ট ।
    Total Reply(0) Reply
  • Akash ২৯ মে, ২০১৯, ২:০৬ পিএম says : 0
    Ami Hindu hote pari,,,tar age Ami Manus,ai modir karone 1somoi pura varot nosto hoiye jabe,,,,somoi asbe sobar bichar hobe asha raken hajar koster majeo...
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুসলিম


আরও
আরও পড়ুন