Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

পাঁচ দেশের মর্জিতে সবাইকে চলতে হবে কেন : এরদোগান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০১৯, ১২:০৬ এএম


আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্যদানকালে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্য রাষ্ট্রের সমালোচনা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, গোটা বিশ্ব এ পাঁচ দেশ থেকে অনেক বড়। এই পাঁচ দেশের মর্জিতেই বিশ্ববাসীর চলতে হবে কেন? বুধবার আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। খবর ডেইলি সাবাহর। এ সময় ‘বিগ ফাইভ’তথা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, রাশিয়া, চীন ও ফ্রান্সের সমালোচনা করে তিনি বলেন, গোটা বিশ্ব এই পাঁচটি দেশের চেয়েও বড়। এরদোগান উল্লেখ করেন যে, তিনি প্রতিটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে এ কথা বারবার বলেন, পাঁচটি দেশের চেয়ে গোটা বিশ্ব অনেক বড়। আর এটা ইনসাফপূর্ণ বিচার কামনা করার একটা পদ্ধতি মাত্র। তিনি বলেন, আমরা সবসময় বিশ্বের নিপীড়িত মানুষের পক্ষে এবং পৃথিবীর অত্যাচারী শক্তি, অধিকাংশ সময় যারা জুলুম ও অত্যাচারের কারণ হয় তাদের বিপক্ষে কথা বলছি। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সক্ষমতার বিষয়ে প্রশ্ন তুলে এরদোগান বলেন, আরাকান, লিবিয়া, ফিলিস্তিনে কি তারা কোনো ন্যায়বিচার করতে পেরেছে? অথচ বিশ্বজুড়ে তারা ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ছবক দেয়, এভাবে মানবতার বুলি আওড়িয়ে মানবতার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। গত ১৭ বছরে তুরস্কের বিচারব্যবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে বলে জানান প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তিনি বলেন, বিগত ১৭ বছরে দেশের বিচারব্যবস্থা সব ক্ষেত্রেই উন্নত ও শক্তিশালী হয়েছে। তুরস্ক একটি স্বাধীন দেশ। আমরা ন্যায়বিচারের শাসনে বিশ্বাসী। কোনো বিচারক, রাজনীতিক- এমনকি আমার দলের কেউ-ই ন্যায়বিচারের ঊর্ধ্বে নয়। ডেইলি সাবাহ।

 



 

Show all comments
  • Rafsun Jani ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৩৩ এএম says : 0
    যারা বলে এরদোগান মুখে বলে কাজে করে না!! তাদের জন্য যেখানে সৌদ,আমিরাতী দেশগুলো আমেরিকার পা চাটে সেখানে তিনি সব নিপীড়ীত মুসলিম পাশে দাড়িয়ে কথা বলেন।। এমনকি এই কথা বলার কারনে আমেরিকা,সৌদরা ও পশ্চিমপন্থী তুর্কি রাজনীতিকরা টাকা দিয়ে তাকে ১৬ সালে তাকে হত্যার চেষ্টা করে!!! যেখানে পশ্চিমা বিশ্ব এমনকি আরব চামচাগুলো তার ঘোর বিরোধ শুধুমাত্র মুসলিমদের নৈতিক পক্ষে কথা বলা এবং পশ্চিমাদের কাছে মাথা না নোয়ানোর জন্য!!! সেখানে তিনি একলা কিভাবে সারাবিশ্বের সাথে যুদ্ধ করবে?? যেই আবালগুলা বলে ইজরাইলের উপর হামলা করেনা কেন তারা কি ইজরাইলরে বিএনপি মনে করে??চাইলেই ধোলাই দেওয়া যায়?? ইজরাইলের পক্ষে পশ্চিমাসহ সৌদিদের পূর্ন সমর্থন আছে।এগুলা নির্বোধরা জানে না।।। আরে এরদোগান অন্তত সারাবিশ্বের মুসলিমদের পক্ষে কথা বলে । কিন্তু এই মুসলিমদের পক্ষে কথা বলার সাহস এখন কার আছে বিশ্বে??যুদ্ধোতো দূরে থাক।।।।। এরদোগান যে তুরষ্কে বসে কথা বলছেন সে তুরষ্কে ধর্মপ্রান মুসলিমরা ৮০ বছর উইঘুরদের মতো ছিলো।কিন্তু তিনি ক্ষমতায় এসে সব বাতিল করেছেন।দিয়েছেন তুরষ্কের মুসলিমদের পূর্ন স্বাধীনতা। যে আবালরা গালাগাল করেন তারা কি জেনে বুঝে গালাগাল করেন?? নাকি সবাই নির্বোধ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Mhamud ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৩৫ এএম says : 0
    এরদোগান এক জন শ্রেষ্ঠ চাপাবাজ....সারা বিশ্বব্যপি মুসলমান নিধন করা হচ্ছে, আর সে চাপার উপর চাপা মেরেই যাচ্ছে?
    Total Reply(0) Reply
  • Imtiaz Arman ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৩৬ এএম says : 0
    মুসলিম বিশ্ব এক না হলে পারবেন না এরদোগান। এখন সৌদি তো আমেরিকার গোলামী করে। মুসলিম দের এক করুন। ইরানের পাশে দাড়ান।এক সাথে সবাই আল্লাহ এর রুজ্জুকে আকড়ে না ধরলে আমেরিকা ইসরাইল, চীন,ভারত,আমেরিকা তো সুযোগ পাবেই
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Bakar Siddique ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৩৭ এএম says : 0
    মহান নেতা এরদোয়ান মুসলিম জাতির জন্য যা করছেন তার জন্য তার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ। তাকে খলিফা হিসাবে নিয়োগ দেয়া উচিত। তিনি গাজায় খাদ্য, পানি সহ সব সাহায্য দিয়েছেন। তিনি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অনেক কিছু দিয়েছেন। তিনি ও আই সির যোগ্য মহা সচিব। আশাকরি তিনি মুসলিম জাতির একতার জন্য চেষ্টা করেই যাবেন। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • raihan ২৪ মে, ২০১৯, ৪:৩৮ এএম says : 0
    সব মুসলিম দেশ কে এক হতে হবে না হলে সব জাইয়গায় মাইর খাইতে হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ