Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

নজরুল সঙ্গীতশিল্পী খালিদ হোসেনের দাফন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

একুশে পদকপ্রাপ্ত নজরুল সঙ্গীতশিল্পী, গবেষক ও স্বরলিপিকার খালিদ হোসেনকে তার কুষ্টিয়ার বাড়িতে মায়ের কবরে চিরশায়িত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পরে রাজধানীর তাজমহল রোডের বাইতুল আমান মসজিদে গুণী এই শিল্পীর প্রথম জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সকাল ১০টায় রাজধানীর নজরুল ইনস্টিটিউটে দ্বিতীয় জানাজার নামাজের শেষে খালিদ হোসেনকে নিয়ে যাওয়া হয় কুষ্টিয়ায়। তার শেষ ইচ্ছে অনুযায়ী কুষ্টিয়ায় মায়ের কবরে তাকে দাফন করা হয়েছে।
খালিদ হোসেনের ছেলে আসিফ হোসেন বলেন, বাবা বলতেন তাকে যেনো দাদির কবরে দাফন করা হয়। বাবার কথা মতই তাকে তাঁর মায়ের কবরে দাফন করা হয়েছে। কুষ্টিয়া ঈদগাহে গতকাল রাতে বাদ এশা জানাজা শেষে কুষ্টিয়া সদর কোটপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়।
খালিদ হোসেনের বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। বেশ কয়েক বছর ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন। কিছুদিন আগে থেকে কিডনির জটিলতা ও ফুসফুসের সমস্যাও বেড়ে গিয়েছিল তার। অবশেষে গত বুধবার রাত ১০টা ১৫ মিনিটে তিনি রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।
তার ইন্তেকালে শোক নেমে আসে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। ১৯৪০ সালের ৪ ডিসেম্বর কলকাতায় জন্ম খালিদ হোসেনের। পাঁচ দশক ধরে বাংলাদেশে নজরুল গীতির শিক্ষক, গবেষক ও শুদ্ধ স্বরলিপি প্রণয়নে কাজ করে যাচ্ছিলেন তিনি।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ও দেশের সকল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ও বাংলাদেশ টেক্সট বুক বোর্ডে সংগীত প্রশিক্ষক ও নিরীক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ