Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ইউএনও’র গ্রামে গ্রামে গিয়ে ধান ক্রয়

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা: | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

গ্রামে গ্রামে গিয়ে কৃষকদের নিকট থেকে সরকারি ক্রয় কেন্দ্রের ধান কিনছেন উল্লাপাড়ার ইউএনও মো. আরিফুজ্জামান ও ক্রয় কমিটির সদস্যগণ।
গত ১ সপ্তাহে প্রায় ৬শ’ মেট্রিক টন ধান ক্রয় করেছেন তারা। ইতোমধ্যে উপজেলার দূর্গানগর, সলপ, পঞ্চক্রোশী, উল্লাপাড়া সদর, পৌরসভা ও পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের কৃষকদের নিকট থেকে সরকারি লক্ষ্যমাত্রার অনুপাতে ধান কেনা শেষ হয়েছে। অবশিষ্ট ৮টি ইউনিয়নে ধান ক্রয় চলছে। চলতি বোরো মৌসুমে বাজারে যখন ধানের দাম ৫২০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা মণ সে সময় ধান চাষিরা সরকারি ক্রয় কেন্দ্রে বাড়ি থেকেই ১০৪০ টাকা মণ ধরে ধান বিক্রির সুযোগ পেয়ে খুশি। কিন্তু বেশির ভাগ চাষিই সরকারি ক্রয় কেন্দ্রে ধান বিক্রির সুযোগ পাচ্ছেন না।
উল্লাপাড়ার মোহনপুরের ধান চাষি সুরেস্বর সরকার, রামনগরের আব্দুল জলিল, গয়হাট্টার শহিদুল ও চন্দ্রগাতীর আনোয়ার হোসেন জানান, বোরো মৌসুমের শুরুতে ধান কাটা শ্রমিক সঙ্কট দেখা দেয়। সাড়ে ৬শ’ থেকে ৮শ’ টাকায় ১ জন ধান কাটা শ্রমিক কিনতে হয়েছে তাদেরকে। অথচ বাজারে নতুন ধানের দাম সর্বোচ্চ সাড়ে ৫৫০ টাকা থাকায় চরম হতাশার মধ্যে পড়েছিলেন তারা। তারপরেও অন্যান্য বছরের মতো মধ্যস্বত্ত¡ভোগীদের হাতে চরম হয়রানি ও আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়নি চাষীদের। তারা ন্যায্যমূল্যেই ধান বিক্রির সুযোগ পাচ্ছেন। এসব কৃষক আরো জানান, এরপরেও উল্লাপাড়ার বেশির ভাগ কৃষক সরকারি মূল্যে ধান বিক্রির সুযোগ না পাওয়ায় এখন চরম হতাশার মধ্যে পড়েছেন। তারা ধান ক্রয়ের পরিমাণ আরো বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আবেদন জানান।
উল্লাপাড়া উপজেলা ধান ক্রয় কমিটির সভাপতি ও ইউএনও মো. আরিফুজ্জামান জানান, এ বছর উল্লাপাড়া ধান ক্রয় কেন্দ্রে ১ হাজার ২৭ মেট্রিক টন ধান কেনার লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। কিন্তু সিরাজগঞ্জের সবচেয়ে বড় উপজেলা হিসেবে স্বীকৃত উল্লাপাড়ায় ধান চাষির সংখ্যা ৬৫ হাজার। এখানে এবার লক্ষাধিক মেট্রিক টন বোরো ধান উৎপাদন হয়েছে। ফলে গ্রামে গ্রামে গিয়ে ধান কেনা হলেও সরকারি ক্রয় কমিটির পক্ষে বেশির ভাগ কৃষকের নিকট থেকেই ধান ক্রয় সম্ভব হচ্ছে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ