Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

ভালো শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য বিশেষ তহবিল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

শিল্পখাতের ভালো উদ্যোক্তাদের ঋণ দিতে বিশেষ তহবিল গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এই তহবিল থেকে কম সুদে শিল্প উদ্যোক্তাদের স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি ঋণ দেয়া হবে। এজন্য শিল্প ঋণের ক্ষেত্রে বেসরকারি বা বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনা হবে। শিল্পঋণ ছাড়া অন্যান্য খাতে ঋণের সুদ হবে বাজারভিত্তিক। এজন্য একটি প্রকল্প নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে ব্যাংকিং খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কেন্দ্রীয় ব্যাংক। অর্থ মন্ত্রনালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গর্ভনর এস এম মনিরুজ্জামান বলেন, বিনিয়োগ বাড়াতে এবং ভালো শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শিগগির এই নীতিমালা তৈরি করে তহবিলটি গঠন করা হবে। আমরা কাজ শুরু করেছি।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বিশেষ তহবিলের অর্থের জোগান দিতে অল্প সুদে বিশ্বব্যাংক ও এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) থেকে ঋণ নেওয়া হকে। এছাড়া, তহবিলে অর্থের জোগান দেবে সরকার ও বাংলাদেশ ব্যাংক। ভালো উদ্যোক্তাদের ঋণ দেয়ার পাশাপাশি যারা ঋণ গ্রহনের পর পারফমেন্স ভাল হবে, সেসব উদ্যোক্তাদের প্রয়োজন হলে ঋণের সিলিং বাড়ানো হবে।
এছাড়া, শিল্প উদ্যোক্তাদের শিল্প ঋণের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামাতে প্রয়োজনে ব্যাংকগুলোকে আরও ছাড় দেয়া হবে। পাশাপাশি বিশেষ তহবিলের আওতায় ব্যাংকগুলোকে অর্থের যোগান বাড়ানোর সঙ্গে অন্যান্য সুবিধা বাড়ানো হবে। এজন্য, কম সুদে ব্যাংকগুলোয় সরকারি খাতের আমানতের যোগান আরও সহজীকরণ করাসহ এডিপি’র বাইরে থাকা অন্যান্য খাত থেকেও কম সুদে আমানত রাখা হবে।
এই নীতিমালা করার পর খেলাপি ঋণের হার কমতে শুরু করবে উল্লেখ করে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা জানান, এরই মধ্যে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এ ধরনের একটি তহবিল থাকলেও নীতিগত কারণে এর পরিধি একেবারেই সীমিত। এদিকে সূত্র বলছে, বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এ ধরনের একটি তহবিল কেন্দ্রীয় ব্যাংকে আগে থেকে আছে। তবে সেটি খুবই সীমিত আকারে হওয়ায় তহবিল বর্তমানে কোনো কাচে আসছে না। ফলে দেশে বিনিয়োগ ত্বরান্বিত করাসহ শিল্পে বড় ধরনের উত্থান ঘটাতে এখন এই তহবিলের ওপর সবচেয়ে বেশি জোর দিচ্ছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ