Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

বজ্রপাতে নিহত ৯

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে নয়জন নিহত হয়েছেন। গত ৩৬ ঘণ্টায় নিহতদের মধ্যে হবিগঞ্জে তিনজন, সিরাজগঞ্জে ২ এবং ইন্দুরকানী, নাটোর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ও কুমিল্লায় একজন করে। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্য নিয়ে এ প্রতিবেদন :
সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় গতকাল বজ্রপাতে দুই কৃষি শ্রমিক নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে ২ জন। নিহতরা হলো সলঙ্গা ইউনিয়নের রঘিয়াদীঘি গ্রামের ফজল শেখের ছেলে ইদ্রিস আলী (৩৫) এবং মহির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জব্বার (৩৬)। আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
বড়পাঙ্গাসী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ন কবীর লিটন ও সলঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল হুদা জানান, উল্লাপাড়া উপজেলার রামাইল গ্রামে চলতি ইরি মৌসুমে একই উপজেলার রঘিয়া দীঘি গ্রামের ইদ্রিস আলী ও আব্দুল জব্বারসহ ৫ শ্রমিক কয়েক দিন ধান কাটা শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিল। তারা মাঠের মধ্যে অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন করে গতকাল শনিবার ভোর রাতে অবস্থানকালে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হয়। তখন বজ্রপাতের আঘাতে ঐ ২ শ্রমিক নিহত ও আরো ২ জন আহত হয়। খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহযোগীতায় নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়।
ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) : ইন্দুরকানীতে মাছের রেনু ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে এক যুবলীগ নেতা নিহত হয়েছে। জানা যায়, গতকাল সকালে ৭ টার সময় উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের খোলপটুয়া গ্রামের মো. ছায়েদ আলী আকনের ছেলে মো. জাকির আকন (৩৫) কচাঁ নদীতে মাছ রেনু ধরতে যায়। এসময় একটি বজ্রপাত তার উপর পড়লে সে অচেতন হয়ে পড়ে। পরে তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত জাকির আকন বালিপাড়া ইউনিয়নের ৬নং খোলপটুয়া ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি।
নাটোর : নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গত শুক্রবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে লিচু বাগান পাহাড়া দিতে গিয়ে বজ্রপাতে আবু হাসনাত ভুলু নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে রাব্বি হাসান নামের আরেক যুবক। নিহত ভুলু উপজেলার গালিমপুর দিয়াড়পাড়া গ্রামের জামাল প্রামানিকের ছেলে। আহত রাব্বি হাসান একই এলাকার আবু রায়হানের ছেলে।
হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জে গত শুক্রবার বজ্রপাতে নিহত তিনজন হলেন চুনারুঘাট উপজেলার আমু চা বাগানের প্রদীপ উড়াওয়ের মেয়ে সীমা উড়াও (১৮), নবীগঞ্জ উপজেলার গুজাখাইড় গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে সিজিল মিয়া (৪৫) ও মাধবপুর উপজেলা বুল্লা গ্রামের জিতু মিয়ার ছেলে ফয়সল মিয়া (৩৭)।
পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, সকালের দিকে বৃষ্টির সময় বাড়ির পাশে হাওরে মাছ ধরতে যান নবীগঞ্জের কৃষক সিজিল। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে বাড়ির পাশে ধান কাটতে যান চা শ্রমিক তরুণী সীমা। কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এছাড়া দুপুরের দিকে নবীগঞ্জ উপজেলার ছানকা বুল্লা গ্রামে জমিতে ধান কাটতে যান ফয়সল মিয়া। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় গত শুক্রবার বজ্রপাতে রাফি উদ্দিন আহমেদ নামে এক ইমামের মৃত্যু হয়েছে। রাফি নাসিরনগর উপজেলার দাঁতমন্ডল গ্রামের মো. শাহনেওয়াজ মিয়ার ছেলে। তিনি উপজেলার দাঁতমন্ডল জামে মসজিদের ইমাম ছিলেন।
কুমিল্লা : কুমিল্লার হোমনা উপজেলায় গত শুক্রবার বজ্রপাতে ফাহাদ (১৪) নামে স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। ফাহাদ হোমনা উপজেলার পাতালিয়াকান্দি গ্রামের মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে ও দুলালপুর চন্দ্রমনি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বজ্রপাত

১৮ জুন, ২০১৯
১৫ জুন, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন