Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

৩৫০ রানকেও ভয় পাচ্ছেন না রুবেল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ১২:৩৯ এএম

এবারের বিশ্বাকাপ যে রানবন্যার হতে যাচ্ছে তাতে কোন সন্দেহ নেই। বিশ্লেষকদের ভবিষদ্বানী কিংবা ইতিহাসও দেয় সে সাক্ষ্যই। ক’দিন আগে হওয়া পাকিস্তান-ইংল্যান্ড সিরিজটিই আরো বড় প্রমাণ। সেই প্রমাণে তিলক হয়ে রইলো গতকালের অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড প্রস্তুতি ম্যাচটিই। আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেটে ২৯৭ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। তবে এই রানপাহাড় গড়তে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে পেরেছিলেন কেবল স্টিভেন স্মিথ। তার এক সেঞ্চুরিতেই এই অবস্থা! আগামী ৩০ মে থেকে শুরু হতে যাওয়া এই বিশ্বকাপে তাই পেসারদের বড় পরীক্ষা দিতে হবে। হতাশ না হয়ে বাংলাদেশের পেস আক্রমণ নিয়ে আশার বানীই শোনালেন রুবেল হোসেন।
অনুশীলনে বেশ ভালো মেজাজেই আছেন এই পেসার। সংবাদমাধ্যমের সামনে এসেই মুখে হাসি ঝুলিয়ে বললেন, ‘নেন, ভালো করে ছবি তোলেন। তবে কঠিন প্রশ্ন কইরেন না!’ সাংবাদিকেরা আর কতটা কঠিন প্রশ্ন করবেন। রুবেলদের সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষা তো নেবেন ব্যাটসম্যানরা।

দিনে দিনে ব্যাটসম্যানদের খেলা হয়ে ওঠা ক্রিকেট আইসিসির টুর্নামেন্টে আরও ব্যাটিংবান্ধব হয়ে ওঠে। বিনোদনের পসরা সাজিয়ে বিপুল দর্শক টানতে আইসিসির টুর্নামেন্ট মানেই চার-ছক্কার খেলা। আর এটি সফল করতে বোলারদের হাত-পা বেঁধে ফেলা, বেশির ভাগ ম্যাচেই তাঁদের অসহায় দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকা ছাড়া কিছুর উপায় থাকে না। কার্ডিফের যে সোফিয়া গার্ডেনসে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ, এই মাঠও যে রানপ্রসবা, কাল দক্ষিণ আফ্রিকা-শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দেখা গেল। প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ৩৩৮ তুলেছে প্রোটিয়ারা।

প্রস্তুতি ম্যাচ নিয়ে চিন্তা করতে ইচ্ছা না জাগলে আরেকটি তথ্য দেওয়া যাক। এ মাঠেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৮ জুন বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ দল। তাই বিশ্বকাপের প্রস্তুতিটা কার্ডিফেই হচ্ছে বাংলাদেশের। কার্ডিফে এসে বাংলাদেশ দলকে প্রথম অনুশীলনটা করতে হয়েছে শহরের ঐতিহ্যবাহী ক্যাথেড্রাল স্কুলের মাঠে। সেখানেই দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে আসা রুবেল জানালেন, যতই রানের খেলা হোক, চ্যালেঞ্জ নিতে তাঁরা প্রস্তুত, ‘আয়ারল্যান্ডে একটা ত্রিদেশীয় সিরিজ খেললাম। ইংল্যান্ডেও খেলার অভিজ্ঞতা আছে আমাদের। জানি এখানে আমাদের (বোলার) জন্য কাজটা কঠিন হবে। এখানে ৩০০-৩৫০ রান সহজেই হয়ে যায়। এখানে আমরা কীভাবে সফল হতে পারি, অবশ্যই একটা পরিকল্পনা থাকবে আমাদের। এটা নিয়ে কাজ করতে হবে কীভাবে আমরা কম রান দিতে পারি বা উইকেট বের করতে পারি।’

রুবেলের আত্মবিশ্বাসী চেহারাটা যেন পুরো দলেরই প্রতিচ্ছবি। কদিন আগের ফাইনাল জয়ের আত্মবিশ্বাস তো আছেই। রুবেল জানালেন আরেকটি সুখবর, দলে খেলোয়াড়দের যে টুকটাক চোটাঘাত ছিল, প্রায় সেরে গেছে। নিজেই যেমন পুরো ছন্দে বোলিং শুরু করেছেন। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের আগে চোট পাওয়া সাকিব আল হাসানও সেরে উঠেছেন। কাঁধের চোটে পড়ায় মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে বোলিং সেবা পাওয়া যাচ্ছে না অনেক দিন হলো। কাল তাঁকে দেখে মনে হলো, বোলিং করতে উন্মুখ। নেটে হাত ঘুরিয়েছেন। হাত ঘুরিয়ে অবশ্য খুব একটা স্বস্তি পেলেন না। বোলিংয়ে পুরো ছন্দ ফিরে পেতে আরেকটু সময় লাগতে পারে মাহমুদউল্লাহর।

রুবেল মনে করেন, দলের এই চনমনে চেহারাটা তাঁদের সহায়তা করবে এবারের টুর্নামেন্ট রাঙাতে, ‘সবার মধ্যে আত্মবিশ্বাস আছে। সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজে আমরা খুব ভালো ব্যাটিং, বোলিং করে বিশ্বকাপে পা রেখেছি। এটা আমাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট। আশা করি সবাই ধারাবাহিকতা ধরে রাখবে। সবাই যদি নিজের ভূমিকা বোঝে, ভালো করতে পারে, আশা করি ভালো কিছুই হবে।’

২০০৫ সালের ১৮ জুন কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনসে মোহাম্মদ আশরাফুলের সেঞ্চুরিতে পরাক্রমশালী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। এই ‘লাকি’ ভেন্যুতেই আজ পাকিস্তান এবং আগামী মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে মাশরাফির দল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রুবেল

২০ মার্চ, ২০১৯
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২০ মার্চ, ২০১৮
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

আরও
আরও পড়ুন