Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসতে তৈরি -পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ৪:২৯ পিএম

বৈরি মনোভাব নেই। বরং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের উপর ভরসা আছে। এক মাস পনেরো দিনের ব্যবধানে তা ফের বুঝিয়ে দিল পাকিস্তান। ভারতের লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটের আগের দিন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছিলেন, মোদি ক্ষমতায় ফিরলে আলাপ-আলোচনায় সমস্যা মেটার আশা বেশি। আর ফলাফল ঘোষণার দু’দিনের মাথায়, শনিবার পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বললেন, ‘বকেয়া সব সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার জন্য ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসতে তৈরি হয়েই রয়েছে ইসলামাবাদ।’ খবর রেডিও পাকিস্তান।

শনিবার মুলতানের এক ইফতার মাহফিলে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এই অঞ্চলের শান্তি ও সমৃদ্ধির স্বার্থেই এ বার আলোচনার টেবিলে বসে পড়া উচিত ভারত ও পাকিস্তানের। তার জন্য পাকিস্তান তৈরিই রয়েছে।

সেই আলোচনার ভিতটাও বানিয়ে দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। গত বৃহস্পতিবার লোকসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণার দিনেই বিজেপি ও তার শরিকদের বিপুল জয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইমরান খান। ইংরেজি ও উর্দুতে পাঠানো সেই টুইট-বার্তায় ইমরান লেখেন, ‘দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের লক্ষ্যে ওর (নরেন্দ্র মোদি) সঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।’

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, পুলওয়ামা কাণ্ডের পর ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে তোলার ব্যাপারে পাকিস্তানের আগ্রহের কারণ, আন্তর্জাতিক চাপ। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক স্বাভাবিক হলে ইসলামাবাদের কাঁধে আইএমএফ-সহ বিভিন্ন দেশের ঋণের বোঝা কিছুটা হাল্কা হওয়ার আশায় রয়েছেন ইমরান।

এর আগে লোকসভা ভোটের ফল-ঘোষণার আগের দিন কিরঘিজস্তানের বিশকেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে আলাো ভাবে সৌজন্য বিনিময় করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুরেশি। কুরেশি ওই সময় সুষমাকে বলেন, ‘আলোচনার টেবিলে বসতে তৈরি আছি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ