Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ফরিদপুরের সালথায় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

পোস্টমর্টেম ছাড়া লাশ দাফন

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ৬:৩৬ পিএম

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার তুগুলদিয়া গ্রামে শুক্রবার বিকালে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে আকুববর মুন্সী (৬৫) মারা যান বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সূত্রে জানা যায় তুগুলদিয়া নবাবের মুরগির খামার ঘরে অবৈধ ভাবে নেয়া বিদ্যুতের লাইনের তারে জড়িয়ে আকা মুন্সী মারা যায়। পরে চিকিৎসা করানোর ছলে আকুববর মুন্সীকে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে জানতে পারে আকুববর মুন্সী আগেই মারা গেছে। হাসপাতাল থেকে লাশ নিয়ে বাড়িতে গিয়ে শলাপরামর্শে রাতেই পুলিশকে না জানিয়ে দাফন সম্পন্ন করতে প্রক্রিয়া চালায়। পুলিশ সংবাদ পেয়ে রাতে নিহতের বাড়ি যায়। খবর পেয়ে সালথা থানা পুলিশ গভীর রাতে ঘটনা স্থলে পৌঁছাইলেও পোষ্ট মর্টেম ছাড়া সকালে লাশের দাফন সম্পন্ন করে নিহতের পরিবার। এ ঘটনায় মুরগির ফার্ম মালিক নবাব পলাতক রয়েছে।
সালথায় পল্লী বিদ্যুতের অবৈধ সংযোগের ছড়াছড়ি। নিয়ম বহির্ভূত ভাবে টাকার বিনিময়ে অবৈধভাবে বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার কারনে এ মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয়রা দাবি করেন। মিটার থেকে দুই থেকে তিনশত গজ দূরে তুগুলদিয়া গ্রামের একাধিক খামারে সংযোগ দেয় পল্লী বিদ্যুতের কর্মরত লোক। মিটার একজনের নামে আর বিদ্যুতের ব্যবহার করছে অন্য লোকে। বিদ্যুত অফিসের কিছু লোকজনের অবৈধ কারিকলামের কারনে এ ধরনের ঘটনা প্রায়ই ঘটছে। স্থানীয়রা বলেন বিদ্যুত অফিসে অভিযোগ করেও কোন লাভ হয় না। এই মৃত্যুর জন্য মুরগীর খামার মালিকের পাশাপাশি পল্লী বিদ্যুতের লোকজন দায়ী। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থার দাবী জানান এলাকাবাসী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ