Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

প্রধানমন্ত্রীর ইফতারে এলে ভালো হতো, বিএনপিকে আ.লীগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ৮:৪২ পিএম

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ইফতার অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতারা যোগ দিলে ভালো হতো বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রী বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

রোববার (২৬ মে) বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপি নেতারা শেখ হাসিনাকে বিএনপির ইফতারের আমন্ত্রণ জানাতে এলে তিনি তাদের এসব কথা বলেন।

রোববার বিকেল ৪টার পরপর বিএনপি নেতারা পৌঁছান আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে। তারা বিএনপির পক্ষ থেকে শেখ হাসিনার ইফতারের আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দেন বিপ্লব বড়ুয়ার হাতে।

পরে বিপ্লব বড়ুয়া সাংবাদিকদের বলেন, গতকাল (শনিবার, ২৫ মে) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে রাজনীতিকদের সম্মানে ইফতারের আয়োজন ছিল। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সব রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। ইফতারে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা অংশ নিলেও বিএনপি অংশ নেয়নি।

ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া সাংবাদিকদের বলেন, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে গণভবনে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংলাপে শেখ হাসিনা যেসব দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, শনিবারের ইফতারেও সেইসব দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের কার্ড আমরা আরামবাগে ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে দিয়ে এসেছি। গতকাল (শনিবার) দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি নির্দেশনায় তার বিশেষ সহকারী হিসেবে আমি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনসহ অন্যান্য নেতাদের সঙ্গে টেলিফোনে আমন্ত্রণের বিষয়টি অবহিত করি। তারা আমাকে জানিয়েছেন, তারা দাওয়াত পেয়েছেন কিন্তু তাদের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচির কারণে আসতে পারবেন না।

বিএনপির দাওয়াত প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের উপদফতর সম্পাদক বলেন, আজ আমরা আগামী ২৮ তারিখের ইফতার অনুষ্ঠানের দাওয়াত পেয়েছি। তাদের কেন্দ্রীয় তিন নেতা এসে আমাদের দলীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে দাওয়াত দিয়েছেন।

বিএনপির দাওয়ার কবুল করছেন কি না— এমন প্রশ্নের জবাবে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ২৮ তারিখ সকালেই জাপান সফরে রওনা হবেন। স্বাভাবিকভাবেই তিনি থাকতে পারছেন না। আর সাধারণ সম্পাদক কিছুদিন আগেই চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরেছেন। আজ মাত্র দাওয়াত পেয়েছি। দলীয় হাইকমান্ডে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।

বিএনপির পক্ষ থেকে দাওয়াত দিতে আসা প্রতিনিধি দলে ছিলেন দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, সহদফতর সম্পাদক বেলাল আহমেদ ও তাইফুল ইসলাম টিপু। এসময় আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম ও জিএম মাসুদুল হাসান।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৮ মে ঢাকা লেডিস ক্লাবে বিএনপির পক্ষ থেকে সব রাজনৈতিক দলের সৌজন্যে ইফতার মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে। দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাবন্দি রয়েছেন এবং তার ইফতারের জন্য মাত্র ৩০ টাকা বরাদ্দ বলে বিএনপিও তাদের ইফতারে অতিথিদের জন্য জনপ্রতি ৩০ টাকা বরাদ্দ রেখেছে বলে জানিয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ


আরও
আরও পড়ুন