Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

মাধবপুরে চা বাগানের ম্যানেজারের অপসারণ চেয়ে শ্রমিক ধর্মঘট

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

হবিগঞ্জের মাধবপুরে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি নেতা এম. মোর্শেদ খানের মালিকানাধীন নোয়াপাড়া চা বাগানের ম্যানেজার ফখরুল ইসলাম ফরিদীর অপসারণ ও ৩৫ দফা দাবি আদায়ে শ্রমিক ধর্মঘট চলছে। গত শনিবার থেকে বাগানের প্রায় সাড়ে ৯শ’ শ্রমিক দাবি আদায়ের লক্ষ্যে কাজে যোগ না দিয়ে ধর্মঘট ও সভা সমাবেশ করছে। এতে গত ২ দিনে বাগানের প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে বাগানের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে।
মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বিষয়টি সুরাহার জন্য আজ সোমবার শ্রমিক নেতৃবৃন্দ প্রশাসন ও বাগান কর্তৃপক্ষের একটি সমঝোতা বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তবে ম্যানেজার ফরিদীর অপসারণের দাবিতে অনঢ় রয়েছে শ্রমিকরা।
নোয়াপাড়া চা বাগানের পঞ্চায়ের সভাপতি কমেট নায়েক জানান, শনিবার সকালে শ্রমিকদের স্থায়ীকরণ, ঘর নির্মাণসহ ৩৫ দফা দাবি নিয়ে কথা বলতে ম্যানেজারের কাছে গেলে ম্যানেজার ক্ষুব্ধ হয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে অসদাচরণ করে। এর প্রতিবাদে চা শ্রমিকরা ম্যানেজার ফখরুল ইসলাম ফরিদী ও পণ্ডিত রবি দাসের অপসারণের দাবিসহ বিভিন্ন দাবি আদায়ে নোয়াপাড়া চা বাগানের নাচঘরে জড়ো হয়ে এ সমাবেশ করে।
লস্করপুর ভ্যালীর সভাপতি রবিন্দ্র গৌড় জানান, শ্রমিকদের দাবি আদায়ের জন্য বাগান কর্তৃপক্ষ, শ্রমকল্যাণ অধিদপ্তরের লোকজন ও বাগান কর্তৃপক্ষকে নিয়ে একটি ত্রিপক্ষীয় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। আশা করা হচ্ছে ফলপ্রসু আলোচনার মধ্যে দিয়ে সৃষ্ট সমস্যার নিরসন হবে।
নোয়াপাড়া চা বাগানের ব্যবস্থাপক ফখরুল ইসলাম ফরিদী বলেন, শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে তিনি কোন খারাপ আচরণ করনেনি। কথার একটু ভুল বুঝাবুঝি হওয়ায় শ্রমিকরা তার প্রতি ক্ষুব্ধ হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রমিক ধর্মঘট


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ