Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

গরুর মাংস খাওয়ার অধিকার নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট, অধ্যাপক গ্রেফতার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৯, ১২:০৮ পিএম

গরুর মাংস খাওয়ার অধিকার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেয়ায় আদিবাসী এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে ভারতীয় পুলিশ। শুধু তাই নয়, ওই শিক্ষককে কলেজ থেকে সাসপেন্ডও করা হয়েছে। বিজেপিশাসিত ঝাড়খণ্ডের সাকচিতে এ ঘটনা ঘটে।

আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আদিবাসীদের গরুর মাংস খাওয়ার অধিকার নিয়ে ২০১৭ সালের জুলাইয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছিলেন জিতরাই হাঁসদা নামে এক আদিবাসী অধ্যাপক।

এর পর তার নামে অভিযোগ হয়। তবে ওই অধ্যাপককে থানায় হাজিরা দিতে বলা হলেও গ্রেফতার করা হয়নি।

প্রায় দুবছর পর রোববার তাকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন তিনি। তার আগাম জামিনের আবেদনও খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

তবে অভিযোগ উঠেছে, রাজনৈতিক স্বার্থেই ভোটপর্ব মিটে যাওয়ার পর গ্রেফতার করা হয়েছে জিতরাইকে। কারণ ভোটের আগে আদিবাসীদের ক্ষেপিয়ে তাদের সমর্থন হারাতে চায়নি রঘুবর দাসের নেতৃত্বাধীন রাজ্যের বিজেপি সরকার।

ঝাড়খণ্ডে এবার ১৪টি লোকসভা আসনের মধ্যে ১২টিই পেয়েছে বিজেপি।

ধারণা করা হচ্ছে, আদিবাসী ক্ষুব্ধ হলে এতটা ভালো ফল করা বিজেপির পক্ষে সম্ভব হতো না।

অধ্যাপক জিতরাই নিজে আদিবাসীদের অধিকার রক্ষা নিয়ে কাজ করেন। পাশাপাশি নাট্যব্যক্তিত্বও।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গরুর মাংস
আরও পড়ুন