Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

চাপ সামলানোই লঙ্কানদের মূল চ্যালেঞ্জ -ম্যাথুজ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৯, ৬:২৯ পিএম

শ্রীলঙ্কান জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক অ্যঞ্জেলো ম্যাথুজ মনে করেন, আসন্ন আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে তার দলের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে চাপ সামাল দেয়া।
১৯৯৬ সালের বিশ্ব চাম্পিয়ন এবং দুই বারের রানার্সআপ দলটি ওয়ানডে রাঙ্কিয়ের ৯ম অবস্থানে থেকে এবারের বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে। ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ২২টি আন্তর্জাতিক একদিনের ম্যাচের অংশ নিয়ে মাত্র ছয়টিতে জয় পেয়েছে লঙ্কানরা। বেশ কয়েকজন সদস্য বেশ কিছুদিন দলের বাইরে কাটনোর পরও সরাসরি জায়গা পেয়েছেন বিশ্বকাপ দলে। অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে নিজেও গত বিশ্বকাপের পর আর কোন ওয়ানডে ম্যাচে খেলেননি। তবে অভিজ্ঞ ম্যাথুজের মতে লঙ্কান খেলোয়াড়রা যেন অতীত পিছনে ফেলে ‘বর্তমান মুহূর্তকে উপভোগ’ করেন। আইসিসি’কে তিনি বলেন, ‘তাদের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে চাপ অতিক্রম করা। আমাদের দলের অনেক সদস্যেরই ইংল্যান্ডে খেলার অতীত অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই সেখানকার কন্ডিশন সম্পর্কে তারা অবগত। তবে তাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে পরিস্থিতি ও চাপ ভালভাবে সামলানো।’
সর্বশেষ বহুদলীয় এই টুর্নামেন্টে লঙ্কান দলের নেতৃত্বে ছিলেন ম্যাথুজ। দলের প্রতি তার পরামর্শ হচ্ছে, তারা যেন এমন পরিস্থি মোকাবেলা করে স্বাধীনভাবে নিজেদের মেলে ধরে, ‘এ ধরনের বড় টুর্নামেন্টে আপনাকে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে স্বাধীনভাবে খেলতে হবে। কোনভাবেই অতিরিক্ত চাপ নেয়া যাবে না। জানি এটি বিশ্বকাপ। এর শিরোপা জয়ের জন্য আপনাকে ভাল পারফর্মেন্স করতে হবে। তবে একই ভাবে আপনাকে চ্যালেঞ্জও মোকাবেলা করতে হবে। আপনি যদি নিজের উপর বেশি চাপ নিয়ে নেন, সেটি আপনার জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। এ কারণে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেবার চেষ্টা করতে হবে। এটিকে পারফর্ম করার সুযোগ হিসেবে নিতে হবে, যার সাহায্যে নিজ দেশকে আরো ভালভাবে উপস্থাপন করা যায়।’
ফিটনেস ও ফর্মহীনতার কারণে ৩১ বছর বয়সি এই ক্রিকেটার গত বছর লঙ্কান ওয়ানডে দল থেকে বাদ পড়েন। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অনুশীলন ম্যাচে ৬৪ সহ সর্বশেষ ৫০ ওভারের ৫ ম্যাচে দুটি হাফ সেঞ্চুরি ও একটি সেঞ্চুরি করে আবার ফর্মে ফিরেছেন ম্যাথুজ।
সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ম্যাথুজ প্রানবন্ত ব্যাটিং করে নতুন মাইলফলকে সৃষ্টি করেছেন। বিশেষ করে টেস্টে। সমালোচকদের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিয়েছেন তিনি। তবে এই অল রাউন্ডারের মতে, বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেতে তার প্রমাণ করার কিছু নেই, ‘প্রতিটি ম্যাচ হচ্ছে নিজের পারপর্মেন্সেকে শানিত করার সেরা সুযোগ। আপনি যদি সেটি করতে পারেন, তাহলে দলও উপকৃত হবে।’
লঙ্কান ওডিআই ক্রিকেটে বর্তমান খেলোয়াড়দের মধ্যে লাসিথ মালিঙ্গার পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ম্যাথুজের। মালিঙ্গা তরুণদের টপকে অভিজ্ঞতার কারণে স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন, ‘আমার লক্ষ্য হচ্ছে পারফরমেন্স করা এবং ধারাবাহিক হওয়া। এ জন্য আমার নিজের প্রতি যত্নবান হতে হবে এবং অবশ্যই সেরাটা দিতে হবে। নিজের অভিজ্ঞতা তরুণদের শেয়ার করতে হবে যাতে তারা এবং দল উপকৃত হয়।’
আগামী ১ জুন কার্ডিফে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে শ্রীলঙ্কা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন