Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আবারও শেয়ারবাজারের পতন ঠেকাল ব্যাংক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৯, ৯:১৬ পিএম

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সোমবার (২৭ মে) লেনদেনে অংশ নেয়া ৫০ শতাংশের বেশি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার পর, বাজারটির প্রধান মূল্য সূচক বেড়েছে। একই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণও। আগের কার্যদিবসের মতো এদিনও ব্যাংক খাতের কোম্পানিগুলোর কল্যাণে পতনের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে মূল্য সূচক।

তিন মাসেরও বেশ সময় ধরে দেশের শেয়ারবাজারে মন্দাভাব থাকায় সম্প্রতি সরকারের ওপর মহলের নির্দেশে পুঁজিবাজারের জন্য বেশকিছু ভালো উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়াতে ব্যাংকের এক্সপোজারে সংশোধনী এনে প্রজ্ঞাপন জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়াতে এমন পদক্ষেপ নেয়ায় পুঁজিবাজারে বড় ধরনের ইতিবাচক প্রভাব পড়বে এমনটাই আশা করছিলেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। কিন্তু বাস্তবে সার্বিক শেয়ারবাজারে তার খুব একটা ইতিবাচক প্রভাব পড়েনি। এক্সপোজার সংশোধনী সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারির পর এক কার্যদিবস বড় উত্থানের দেখা মিললেও মূলত এখনও পতনের মধ্যেই রয়েছে শেয়ারবাজার।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১০৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৭৫টির এবং দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৬৫টির। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের এই দাম কমার মধ্যেও ১৬টি ব্যাংকের শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮টি ব্যাংকের।

বেশিরভাগ ব্যাংকের শেয়ার দাম বাড়ায় ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় দশমিক ২১ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২৫৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসইর-৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮২৮ পয়েন্টে উঠে এসেছে। তবে পতনের হাত থেকে রক্ষা পায়নি ডিএসই শরিয়াহ সূচক। এ সূচকটি আগের দিনের তুলনায় ১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৯৯ পয়েন্টে।

এদিকে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার মধ্যে ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩৫১ কোটি ৪৪ লাখ টাকার। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩২৮ কোটি ৯১ লাখ টাকার। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ২২ কোটি ৫৩ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ১৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৬৯৫ পয়েন্টে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার। লেনদেন অংশ নেওয়া ২৩৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৮৪টির, কমেছে ১০৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন