Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

বগুড়ায় স্বামীর সন্ধান চেয়ে ২ গৃহবধূর সংবাদ সম্মেলন

আমরা ভীত সন্ত্রস্ত আতংকিত

বগুড়া ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০১৯, ৪:০৯ পিএম

বগুড়ার ২ গৃহবধূ পৃথক দুটি সংবাদ সম্মেলনে তাদের নিখোঁজ স্বামীদের সন্ধান চেয়েছেন ।
বুধবার বগুড়া প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত একটি সংবাদ সম্মেলনে বগুড়ার গাবতলী উপজেলার হাসনাপাড়া গ্রামের গৃহবধূ মোছাঃ খাদিজা বেগম বলেছেন , তিনি গত ১৪ মে স্বামী ও তার বড় বোন মোছাঃ আমিছা বেগমকে নিয়ে গাবতলী কমার্শিয়াল কাজী মার্কেটে কেনাকাটা করে বিকাল ৩টায় ওই মার্কেট থেকে বের হয়ে রাস্তায় বের হওয়ার পরপরই ডিবি পরিচয়ে ৩জন তাকে জাপটে ধরে অপেক্ষমান একটি সিএনজিতে তোলার চেষ্টা করে । এঘটনায় আতংকিত হয়ে আমার স্বামী চিৎকার দিলে লোকজন তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসে । তখন ওই ৩ ব্যাক্তি নিজেদের আইডি কার্ড দেখিয়ে বলে আমরা ডিবির লোক আসামী ধরতে এসেছি । ফলে লোকজন সরে গেলে তার আমার স্বামীকে নিয়ে চলে যায় ।
এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ওই দিন রাত ১০টায় আমার শাশুড়ী গাবতলী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে । এর পর থেকে ডিবি অফিস সহ পুলিশের বিভিন্ন দপ্তরে খোঁজ নিলেও সব জায়গা থেকেই আমাদের নিরাশ করা হয়েছে । কোথাও আমার স্বামীর হদিশ পাইনি । এতে আমরা ভীত ,সন্ত্রস্ত, আতংকিত হয়ে পড়ছি ।
একই স্থানে অনুষ্ঠিত অন্য একটি সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া সদরের নিশিন্দারা চাঁদপুর গাড়ীপাড়া গ্রামের গৃহবধু শরিফা আকতার তার স্বামী নিখোঁজের বর্ণনা দিয়ে বলেন, তার স্বামী মোঃ ফজলুল বারী টাঙ্গাইলের গোরাই এলাকার একটি টেক্সটাইল মিলের কর্মচারি । গত ১০-০১-১৯ ইং তারিখে নিজের অস্থায়ী আবাস থেকে অফিসের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে নিখোঁজ হয় । ১৯-০৫-১৯ ইং তারিখে তার নিখোঁজের ব্যাপারে বগুড়া সদর থানায় জিডি করা হয় ।
দীর্ঘদিন হয়ে গেলেও তার স্বামীর কোন খোঁজ খবর না পেয়ে তিনি তার তৃতীয় শ্রেনীতে পড়–য়া কন্যা মাহিশা মেহজাবীন ও দেড় বছর বয়সী কন্যা নুজহাতের ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন বোধ করছি বলে কাঁদতে কাঁদতে বলেন শরিফা আকতার ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংবাদ সম্মেলন


আরও
আরও পড়ুন