Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

গোপালগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা

স্টাফ রিপোর্টার ,গোপালগঞ্জ | প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

গোপলগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম লাচ্চু শরীফের বিরুদ্বে ৯ ইউপি মেম্বর অনাস্থা দিয়েছে।
আজ বুধবার ওই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে ৯ ইউপি মেম্বর স্বাক্ষরিত লিখিত অনাস্থা প্রস্তাব জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক কালাচাঁদ সিংহের কাছে পেশ করেন ইউপি মেম্বররা।

স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক কালাচাঁদ সিংহ এ অনস্থা প্রস্তাবটি গ্রহন করেন।
আভিযোগে বলা হয়েছে, পর পর দু’ বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে লাচ্চু শরীফ কাউকেই পরোয়া করেন না। জম্ম, মৃত্যু নিবন্ধনে সরকারি ফি ব্যাতীত ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা আদায় করেন। বিধবা, বয়স্ক, প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে কার্ড প্রতি ৩ হাজার ৫ শ’ থেকে ৫ হাজার টাকা করে নেন। সরকারি ঘর দেয়ার কথা বলে গরীবদের কাছ থেকে ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা নিয়েছেন। কিন্তা তারা ঘর পাননি। তিনি গোপীনাথপুর স্কুলের জায়গা দখল করে সেখানে দোকান ঘর তুলে ব্যবসায়ী বসিয়ে অগ্রিম ও ভাড়া দিয়ে লাখ লাখ টাকা আয় করছেন। এছাড়া তিনি সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করেছেন। ভূয়া বিল ভাউচার করে বিভিন্ন প্রকল্প থেকে সরকারি লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম লাচ্চু শরীফের ০১৭১৮ ৭৬৭৫৬৬ নম্বরের মোবাইলে বারবার ফেন দেয়া হয়। ফোনে রিং হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এ কারণে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার ডিডি কালাচাঁদ সিংহ বলেন, অনাস্থা প্রস্তাব পেয়েছি। এটির একটি প্রক্রিয়া আছে। সেটি প্রতিপালন করার জন্য এ প্রস্তাবটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে আমরা প্রেরণ করব।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গোপালগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যান
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ