Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

যানজট নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক প্রস্তুতি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক

মুন্সী কামাল আতাতুর্ক মিসেল | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

ঈদকে সামনে রেখে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে পুলিশ। ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের যাতে মহাসড়কে যানজটের কবলে পড়তে না হয় সেজন্য কুমিল্লা পুলিশের পক্ষ থেকে আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। 

যানজট নিরসনে ইতোমধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে জেলা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ, ট্রাফিক পুলিশ ও কমিউনিটি পুলিশ ব্যস্ত সময় পাড় করছে। আসন্ন ঈদযাত্রায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট ও আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কুমিল্লা হাইওয়ে পুলিশের ৭শ’ ১২ জন সদস্য মহাসড়কের কুমিল্লার বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়োজিত থাকবেন।
হাইওয়ে পুলিশের কুমিল্লা রিজিয়নের পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের চাপে যানবাহনের সংখ্যা ৫ থেকে ৬ গুণ বেড়ে যায়। মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থে চলতি সপ্তাহে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লায় রিজিয়নে ৭১২ জন পুলিশ ২৪ ঘন্টা মাহসড়কের কাজে নিয়োজিত থাকবেন। এর মধ্যে ৪১ জন সদস্য মোবাইল টিমে কাজ করবে এবং ৩৬ জন অফিসার মটরবাইক নিয়ে ‘কুইক টিম’ মহাসড়কে থাকবে। এছাড়া মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে হাইওয়ে পুলিশের মোবাইল নাম্বার সম্বলিত ভিজিটিং কার্ড বিতরণ করা হবে। যাত্রী ও চালকদের কাছে যাতে কোথাও মহাসড়কে দুর্ঘটনা বা চাঁদাদাবি করলে সাথে সাথে ম্যাসেজটি যেন হাইওয়ে পুলিশের নাম্বারে জানালে সেখানে কুইক টিম দ্রুত পৌঁছে যাবে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।
এদিকে আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অতিরিক্ত যানবাহন চলাচল ও ঘরমুখো মানুষের যাতায়াতের সুবিধার্থে এবং যানজট নিরসনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি, গৌরীপুর, ইলিয়টগঞ্জ, শহীদনগরসহ মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে অবৈধ পার্কিং এবং মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে দেয় পুলিশ। হাইওয়ে পুলিশ গত কয়েকদিন ধরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে এই অভিযান পরিচালনা করে। ঈদে ঘরমুখো মানুষ যেন নির্বিঘ্নে তাদের গন্তব্যস্থানে পৌঁছতে পারে সে লক্ষ্যে জেলা পুলিশ এবার আগে ভাগেই বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ শুরু করেছে। মহাসড়কের বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি জোরদার করা হবে টহল।
এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশের দাউদকান্দি থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উভয় মহাসড়কে কুমিল্লার প্রায় ১০টি স্থানে যানজটপ্রবন পয়েন্ট, মহাসড়কের পাশের হাটবাজার এলাকায় পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে। মহাসড়কের কোথাও কোন যানবাহনে তল্লাশির নামে হয়রানি করা হবে না। কুমিল্লা জেলা পুলিশের ঈদের দিন পর্যন্ত সব ধরণের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। পুলিশ সুপার আরো জানান, ইতোমধ্যে মহাসড়কের বিভিন্ন স্পষ্টে যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে থানা পুলিশ, কমিউনিটি পুলিশ সদস্য দায়িত্বপালন শুরু করেছেন। ঈদ ঘনিয়ে আসলে কমিউনিটি পুলিশের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আশপাশের অবৈধ দোকানপাট ও স্থাপনা সরানোর কাজ শুরু হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যানজট

২৩ অক্টোবর, ২০১৯
২ অক্টোবর, ২০১৯
২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
৯ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ