Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভুল চিকিৎসায় রাফি নামে দেড় বছরের এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার রাত ১১টার দিকে শহরের সুপার ক্রিসেন্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। শিশু মৃত্যুর পর হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। নিহত শিশু রাফি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর গ্রামের গাড়ি চালক মোঃ আরিফ মিয়ার ছেলে। শিশুটির বাবা মোঃ আরিফ জানান, বুধবার মস্তিষ্কে সমস্যা ও খিঁচুনি সমস্যা হওয়ায় শিশুটিকে শহরের কুমারশীল মোড়ের ল্যাব এইড হাসপাতালে শিশু চিকিৎসক ডা. আকতার হোসাইনের চেম্বারে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি শিশুটিকে সুপার ক্রিসেন্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। এরপর ওই হাসপাতালের ২০৫ নম্বর কক্ষে শিশুটিকে ভর্তি করানো হয়। পরে ডা. আকতার হোসাইন ও জেলা সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ কনসালটেন্ট ডা. মনির হোসেন যৌথভাবে শিশুটির চিকিৎসা করেন। শিশুটির নানী সুজেদা বেগম অভিযোগ করেন, তার অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় শনিবার দু’জন চিকিৎসক মিলে শিশুটিকে পাঁচটি ইনজেকশন পুশ করেন। অতিরিক্ত ইনজেকশন পুশ করার কারণেই সে রাত সাড়ে ১০টার পরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এরপর হাসপাতালের ওই দুইজন চিকিৎসক ও কর্মচারীরা গা ঢাকা দেয়। ডা. মনির হোসেন বলেন, শিশুটি আমার রোগী নয়। শিশু চিকিৎসক আকতার হোসাইনের রোগী। আমি রোগীকে দেখে চলে যাবার পর আকতার হোসাইন তার চিকিৎসা করেন। ডা. আকতার হোসাইন বলেন, শিশুটির বমি ভাব ছিল। এরপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে বলি। এরপর ডা. মনির হোসেন তাকে দেখে ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু রোগীর লোকজন ঢাকায় নিতে বিলম্ব করেছে। এরই মধ্যে সে মারা গেছে। অতিরিক্ত ইনজেকশন পুশের বিষয়ে তিনি বলেন, অতিরিক্ত



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ