Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ডাকসু অনিয়ম; তদন্ত রিপোর্ট ছাত্র ইউনিয়নের প্রত্যাখ্যান

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০১৯, ৪:২৬ পিএম

ডাকসু নির্বাচন ঘিরে অনিয়মের প্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করে তা মিথ্যাচার উল্লেখ করে নিন্দা জানিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন।

আজ শনিবার বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি মোঃ ফয়েজউল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক রাজীব দাস এক যৌথ বিবৃতিতে ডাকসু নির্বাচন ঘিরে অনিয়মের প্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটি গত ২৯ মে, ২০১৯ ‘নির্বাচনে কোথাও কারচুপি’র প্রমাণ পাওয়া যায়নি’ বলে যে রিপোর্ট প্রদান করেছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন।

বিবৃতিতে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ বলেন, মিডিয়ায় অনিয়মের ব্যাপক প্রমাণ আসা, সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রো-ভিসির অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া গেছে শীর্ষক মিডিয়ায় বক্তব্য, পর্যবেক্ষক শিক্ষকদের বিবৃতির পরও তদন্ত কমিটি কোনো অনিয়ম পায়নি, শুধু ভোটারদের সারির ক্ষেত্রে একটু অব্যবস্থাপনা হয়েছে বলে রিপোর্ট প্রদান করেছে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, নির্বাচনের দিন অনিয়মের প্রেক্ষিতে ছাত্রলীগ নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত শিক্ষার্থী সংসদ ব্যাতিত সবগুলো জোট নির্বাচন বয়কট করেছিল, কারচুপি ও অনিয়মে ভরা ডাকসু নির্বাচন বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবি জানিয়েছিল এবং নির্বাচন পরবর্তী সময়ে পুনঃনির্বাচনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অনশনরত কয়েকজন সাধারণ শিক্ষার্থীর অনশন ভাঙ্গানোর সময় সঠিক তদন্তের ভিত্তিতে অনিয়মের বিষয় শিক্ষার্থীদের মাঝে উন্মোচন করা হবে বলে প্রশাসন যে আশ্বাস দেন, তদন্ত রিপোর্টে তার বিপরীত ভূমিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করলো। তদন্ত কমিটির মিথ্যচারের মাধ্যমে বিতর্কিত নির্বাচনকে বৈধতা দানের যে চেষ্টা তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও তার ছাত্র-শিক্ষকসমাজের জন্য কলঙ্কজনক এক অধ্যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডাকসু

১৪ মার্চ, ২০২০
২৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ