Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

পাবনায় বাঙ্গি বেঁচে বোনের জন্য জামা কিনতে চায় এক শিশু-কিশোর

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০১৯, ৪:৩০ পিএম

অর্থনীতির ভাষ্য মতে, ‘মানুষের চাহিদা অসীম।’ এই অসীম চাহিদার মধ্যে অনেকে সীমিত চাহিদা পূরণ হলেও খুশি থাকেন। সীমিত চাহিদা পূরণে যাঁদের সক্ষমতা নেই, তাঁরা হতদরিদ্র। এই সংখ্যা একেবারে কম তাও নয়। ঈদের আগে সবারই নতুন জামা-কাপড়, একটু ভালো মন্দ খাবার খাওয়ার শখ তো থাকে, অস্বাভাবিক কিছু নয়। কতজন এই শখ পূরণে সক্ষম ?
পাবনার ঈশ্বরদীতে প্রায় শিশুই বলা চলে বোনের জামা কিনতে কয়েকটি বাঙ্গি নিয়ে জংশনের পাশে বসেছে। এই বাঙ্গি বিক্রি করে দুই বোনের জন্য জামা কিনবে। টাকা বাঁচলে নিজের জন্যে।
পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার মাজদিয়া মাদ্রাসা পাড়ার হতদরিদ্র কৃষক আবদুল কুদ্দুস, অন্যের জমিতে কাজ করেন। কখনও কাজ থাকে আবার কখনও থাকে না। তাঁর পক্ষে পুত্র কন্যার শখ পূরণ করা সম্ভব নয়, দু’মুঠো অন্নের যোগান দিতেই ঠিকমতো পারেন না। একজন পিতার জন্য এটা কষ্টের। এর রকম পিতার সংখ্যা নেহাতেই কম তা নয়। কে কার এতো খবর রাখবে। ইউপি চেয়ারম্যান হয়ে গেলে তিনিও খবর রাখতে পারেন না। হয়তো বা আব্দুল কুদ্দুসের পক্ষে ইউপি চেয়ারম্যান পর্যন্ত যাওয়া সম্ভব নয়। যিনি ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে যেতে পারেন না, তাদের পক্ষে এম.পি ,মন্ত্রী’র নাগাল পাওয়া কঠিন। পেলে হয়তো সাহায্য-সহযোগিতা কিছু পেতেন তাঁরা।
ঐ উপজেলার আসিফ ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশনের কাছে বাঙ্গি নিয়ে বসে আছে। জানা যায়,
এই বাঙ্গি বিক্রি করে দুই বোনের জামা কিনে দেবে। তারা এক ভাই দুই বোন। বাঙ্গি বেঁচে বোনের জন্য ও নিজের জন্য জামা কিনতে পারবে কিনা , আমরা বলতে পারি না।



 

Show all comments
  • আফজাল হোসাইন হাসান ১ জুন, ২০১৯, ৮:৩৫ পিএম says : 0
    খবরটা পড়েছি আর কেঁদেছি অঝোর ধারায়।আমার পচন্ড অভিমান আল্লাহ কেনো আমাকে পৃথিবীর সেরা ধনী ও পচন্ড ক্ষমতাধর বানাচ্ছেননা!ইনশাআল্লাহ একদিন এই দেশের হতদরিদ্র মানুষগুলার জন্য কিছু করবো।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাবনা


আরও
আরও পড়ুন