Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

খাদ্য গুদামের চাল পাচারকালে আটক ২

মাদারীপুরে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম


মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট খাদ্য গুদামের চাল পাচারকালে হাতে নাতে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবিতে স্থানীয় বাসিন্দা ও শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল করে। শনিবার সকালে খাদ্য গুদাম রক্ষক কর্মকর্তাসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে রাজৈর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান।

স্থানীয় ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গুদামের সরকারি চাল দীর্ঘদিন ধরে টেকেরহাট গুদাম রক্ষক গাজী সালাউদ্দিনসহ গুদামের কয়েক কর্মকর্তা-কর্মচারি যোগসাজসে পাচার করে আসছিল। শুক্রবার দুুপুরে গুদামে রক্ষিত প্রতি চালের বস্তা থেকে ৩-৪ কেজি চাল বের করছিল। এ সময় স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে খবর দিলে তিনি পুলিশ নিয়ে এসে সেলিম শেখ ও মমরাজ মৃধা নামে দুই কর্মচারিকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে আটক কর্মচারিরা চাল পাচারের বিষয়টি স্বীকার করে বলেছে, খাদ্য গুদামের গুদাম রক্ষক গাজী সালাহ উদ্দিনের নির্দেশে আমরা বস্তা থেকে চাল বের করছিলাম। আমরা তার চাকরি করি তাই তার হুকুম মানতে হয়েছে। তবে টেকেরহাট খাদ্য গুদামের গুদাম রক্ষক গাজী সালাহ উদ্দিন চাল পাচারে জড়িত থাকার বিষয় অস্বীকার করেন। এ ব্যাপারে টেকেরহাট খাদ্য গুদামের ঠিকাদার উজির শেখ বলেন, বিষয়টি টের পেয়ে আমরা ইউএনওকে খবর দিলে ইউএনও এসে দুইজনকে হাতে নাতে আটক করেন। দীর্ঘদিন থেকেই একটি চক্র এ অপকর্ম করে আসছিল।

এ ব্যাপারে রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহানা নাসরিন বলেন, চাল পাচারের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। এ ঘটনায় গুদাম শীলগালা করা হয়েছে ও জেলা প্রশাসকের অনুমতিক্রমে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। বর্তমানে দায়িত্বপ্রাপ্ত গুদাম রক্ষককে দায়িত্ব পালন থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। তিনজনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. জামাল উদ্দিন বলেন, বিষয়টি শুনে আমি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রককে নির্দেশ দিয়েছি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য। রাজৈর থানার ওসি শাহজাহান মিয়া বলেন, ‘রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার লিখিত অনুমতিতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মামলা


আরও
আরও পড়ুন