Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

নন্দা দেবী শিখরে উঠতে গিয়ে নিখোঁজ আট পর্বতারোহী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০১৯, ১:৫১ পিএম

ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বত নন্দা দেবীর শিখরে উঠতে গিয়ে আটজন পর্বতারোহীর একটি দল নিখোঁজ হয়ে গেছে। এই দলে রয়েছে ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের নাগরিক। খবর বিবিসি।

তারা হিমালয়ের ৭৮১৬ মিটার উঁচু এই পর্বতটির পূর্ব দিক থেকে গত ১৩ই মে উঠতে শুরু করেন। কিন্তু যখন তারা নির্ধারিত সময়েও বেস ক্যাম্পে ফেরত আসেননি, তখন অনুসন্ধান ও উদ্ধার দলগুলোকে তাদের খোঁজে পাঠানো হয়।

তবে স্থানীয় একজন কর্মকর্তা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ভারী বৃষ্টি আর তুষারপাতের কারণে উদ্ধার অভিযান ব্যাহত হচ্ছে। ''পর্বতারোহীরা বেস ক্যাম্পে ফিরে না আসায় তাদের খুঁজে বের করতে আমরা সর্বশক্তি নিয়োগ করেছি, কিন্তু খারাপ আবহাওয়ার কারণে অভিযানে সমস্যা হচ্ছে,'' বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলছেন পিথোরাগড় জেলার ম্যাজিস্ট্রেট বিজয় কুমার জোগদান্ডে।

রবিবার সকাল থেকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার উদ্ধার অভিযানে অংশ নেবে বলে আশা করা হচ্ছে। আটজনের এই দলে রয়েছেন চারজন ব্রিটিশ, দুইজন আমেরিকান, একজন অস্ট্রেলিয়ান আর একজন ভারতীয় নাগরিক।

দলটিকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ব্রিটিশ পর্বতারোহী মার্টিন মোরান, যার স্কটল্যান্ডের কোম্পানি ভারতীয় হিমালয় অঞ্চলে অনেক পর্বত অভিযান পরিচালনা করেছে।

অভিযানের একদিন আগে মার্টিন মোরান তার ফেসবুক পাতায় যে ছবি পোস্ট করেন, সেখানে দেখা যায় যে, দলটি ভাওয়ালির নেম খারোলি বাবা মন্দিরের চূড়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করছে।

২২শে মে তারিখে দ্বিতীয় বেস ক্যাম্প, যার উচ্চতা ৪৮৭০ মিটার, সেখান থেকে দেয়া আরেকটি পোস্ট থেকে আভাস পাওয়া যায় যে, দলটি আগে কেউ না ওঠা একটি পর্বতের শিখর জয় করার চেষ্টা করতে যাচ্ছেন।

তবে দলটির কখন বেস ক্যাম্পে ফিরে আসার কথা ছিল, তা নিয়ে নানা রকম তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। তবে স্থানীয় গণমাধ্যমে তথ্য অনুযায়ী, নন্দা দেবীর বেস ক্যাম্পে তাদের ৩১শে মে ফিরে আসার কথা চিল। আর কাছের গ্রাম মুসসিয়ারিতে ফিরে আসার কথা ছিল ১লা জুন।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ দপ্তরের একজন মুখপাত্র বলেছেন , ''ভারতীয় হিমালয় পর্বতে কয়েকজন ব্রিটিশ অভিযাত্রীর নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার খবর পাওয়ার পর আমরা ভারতীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। যেকোনো ব্রিটিশ নাগরিকের দরকারে আমরা সাধ্যমত সবরকম সহায়তা করবো।''

সূত্র: বিবিসি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ