Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

আয়নায় নিজেকে দেখুন: হাছানকে রিজভী

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০১৯, ২:২৭ পিএম

দেশে মাদকের প্রসার নিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের এক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তাকে আয়নায় নিজের মুখ দেখার পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার ঢাকার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এই প্রসঙ্গটি তোলেন।

বিএনপি নেতা বলেন, রিজভী বলেন, “গত শুক্রবার তামাকবিরোধী সংগঠন ‘মানস’ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘জিয়াউর রহমান তার শাসনামালে দেশকে মাদকের অভ্যায়ণ্য বানিয়েছিলেন, সেখান থেকে সরকার দেশকে মাদকমুক্ত করার চেষ্টা করছে’।

“আমি বলব, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আমলে কোনো ‘বদি’ ছিল না, যে বদিকে পিছনে দাঁড় করিয়ে মাদকমুক্ত করার ঘোষণা দিয়ে ফান করেন মিডনাইট প্রধানমন্ত্রী। আর সেই বিনাভোটের সরকারের গোয়েবলস মার্কা তথ্যমন্ত্রী হলেন হাছান মাহমুদ। আসল বিষয়টা হলো, এধরনের উদ্ভ্রান্ত বক্তব্য দেয়াটাই মন্ত্রিত্ব টিকিয়ে রাখার গ্যারান্টি।”

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদের চট্টগ্রামের নির্বাচনী এলাকায়ই ‘মাদকের অভয়ারণ্য’ বলে দাবি করেন রিজভী।

তিনি বলেন, “সে এলাকায় ঘরে ঘরে ‘বদি বাবা’ পাওয়া যায়, ওটার লাইসেন্স কে দিয়েছে জানাবেন কি?

“গত ৩১ মে বিবিসির খবরে বলা হয়ে্ছে, ১৯৯৭ সালে নাফ নদী দিয়ে বাংলাদেশে প্রথম ইয়াবার চালান ঢোকে। তখন ক্ষমতায় ছিল কোন দলের সরকার? এটা নিশ্চয় তথ্যমন্ত্রীর জানা আছে।

“তাই হাছান মাহমুদকে বলব, কোনো কথা বলার আগে একবার আয়নার দিকে তাকিয়ে নেবেন।”

ঈদযাত্রায় জনদুর্ভোগ নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করেন বিএনপি নেতা।

তিনি বলেন, “ঈদযাত্রাকে কেন্দ্র করে গণপরিবহনে যে সীমাহীন নৈরাজ্য চলছে, ইতিহাসে এমন ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি। সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। ভাড়া নিয়ে গণপরিবহনের লোকেরা যাত্রী সাধারণের সাথে চরম দুর্ব্যবহার করছে, লাঞ্ছিত করছে। মহাসড়কে দুর্বিসহ যানজটে পড়ে মানুষ সীমাহীন কষ্ট করছে। এগুলো দেখার কেউ নেই।

“গণপরিবহনে এ নৈরাজ্যের জন্য দায় ওবায়দুল কাদের সাহেবরা এড়াতে পারেন না। গণতান্ত্রিক দেশে এ ধরনের ব্যর্থতার দায় নিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী পদত্যাগ করেন। কিন্তু বংশানুক্রমিকভাবে পদত্যাগের জিন আওয়ামী নেতাদের মধ্যে নেই।”

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবুল খায়ের ভুঁইয়া, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রিজভী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ