Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

কলাপাড়ায় পোষ্টার ছেড়ার হিড়িক থানায় অভিযোগ দায়ের

কলাপাড়া(পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০১৯, ৬:৩৮ পিএম

কলাপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান ও পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদারের ছবি সম্বলিত ঈদ শুভেচ্ছা দেয়ার পোষ্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, বিল বোর্ড ও প্ল্যাকার্ড ছেড়ার হিড়িক পড়েছে। রাতের আধারে এক দল দুর্বৃত্তরা এসব পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলেছে। এঘটনায় ০৮মে শনিবার কলাপাড়া থানায় দুটি পৃথক জিডি করেছে কলাপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান ও কলাপাড়া পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার। জিডি নং-৬৬৪/১৯ ও ৬৬৫/১৯। 

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, গত ০৬ মে সোমবার দিবাগত রাতের আধারে একদল সন্ত্রাসী গ্রপ এসব পোষ্টার ব্যানার ধারালো চাকু দিয়ে ছিড়ে ও ভেঙ্গে ফেলে। এর ফলে দলের মধ্যে স্বাভাবিক শৃঙ্খলা বিঘিœত হতে পারে এবং আইন শৃঙ্খলা অবনিত হতে পারে বলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান উল্লেখ করেন। বিষয়টি কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধে জিডি করেন তারা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, কলাপাড়া থানার সামনেসহ পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ন স্থানে সাটানো বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক রাকিবুল আহসান ও পৌর মেয়র বিপুল হাওলাদারের ছবি সম্বলিত ঈদ শুভেচ্ছা দেয়ার পোষ্টার, ফেস্টুন, ব্যানার, বিল বোর্ড ও প্লাকার্ড ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোন কোন পোষ্টারে ধারালো চাকু অথবা বেøড দিয়ে মাঝখানে শুধুমাত্র একটান দিয়ে ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোথাও আবার ব্যানার গুলো ছিড়ে নিচে ফেলা দেয়া হয়েছে। কোন কোন স্থানের সাটোনো পোষ্টার উধাও হয়ে গেছে। এঘটনায় কলাপাড়া উপজেলা আ.লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে এক ধরনের উত্তেজনাকর পরিবেশ বেশ বিরাজ করছে।

কলাপাড়া উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুলতান মাহমুদ জানান, জাতির জনকের সম্বলিত পোষ্টার ছেড়ার ঘটনা আসলেই দু:খজন। যারা এসব পোষ্টার ছেড়ার সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করছি। কলাপাড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বাবুল খান জানান, দলের ভিতরে অনুপ্রবেশ কারীরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আমার কাছে মনে হেচ্ছ। যার এঘটনা ঘটিয়েছে তাদের মাঝে আদর্শ নেই, তারা হীন মানসিকতার।
কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, অনুসন্ধান সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ


আরও
আরও পড়ুন