Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

আলোচনার প্রস্তাব দিয়ে মোদিকে ইমরানের চিঠি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ জুন, ২০১৯, ১২:০৩ এএম | আপডেট : ১২:১৪ এএম, ৯ জুন, ২০১৯

মীমাংসাযোগ্য সব সমস্যার সমাধানে নয়াদিল্লির সঙ্গে আলোচনা চায় ইসলামাবাদ, এই বার্তা দিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শুক্রবার তিনি এ চিঠি পাঠান। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও টিভির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। খবরে বলা হয়, আবারও কাশ্মীরসহ অন্যান্য সমস্যাগুলোর সমাধানে আলোচনার প্রস্তাব দেন তিনি। তার চিঠিতে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী পদে বসার জন্য নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইমরান খান। তিনি বলেন, দুই দেশের দারিদ্র্য দূরীকরণের একমাত্র পথ আলোচনা, পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন বলেও ইমরান খান চিঠিতে উল্লেখ করেছেন। নরেন্দ্র মোদি দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ভারতের সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। মোদি ও ইমরান খান ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা, তারপর বালাকোটে জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবিরে ভারতের বিমান হানা এবং তার পরদিন পাকিস্তানের পাল্টা আক্রমণে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ে। যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। স¤প্রতি লোকসভা নির্বাচনে ব্যাপক জয় নিয়ে নরেন্দ্র মোদি দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় ফিরে আসার পর, তার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন ইমরান খান। দক্ষিণ এশিয়ার সমৃদ্ধি, উন্নয়ন ও শান্তির জন্য একসঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন তিনি। সে সময় অঞ্চলে শান্তি এবং সমৃদ্ধির জন্য বিশ্বাস এবং সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ তৈরি করার আহ্বান জানান মোদি। পাকিস্তানের আলোচনার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে ভারত জানিয়ে দেয়, সন্ত্রাস ও আলোচনা একসঙ্গে চলতে পারে না। বৃহস্পতিবার ভারতীয় পররাষ্ট্র দফতরের তরফে জানানো হয়, কিরঘিজিস্তানের রাজধানী বিশকেকে এসসিও সম্মেলনের ফাঁকে ভারত ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের কোনও পরিকল্পনা নেই। এর একদিন পর (শুক্রবার) মোদিকে চিঠি পাঠান ইমরান। জিও টিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন