Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

একাডেমীতে বৃটিশ কোচেই আস্থা বাফুফের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০১৯, ৮:১০ পিএম

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) রাজধানীর বেরাইদের ফর্টিস গ্রাউন্ডে গত এপ্রিলে চালু করেছে নতুন একাডেমি। চালুর পর থেকে প্রায় আড়াই মাস ধরে স্থানীয় সাত কোচের অধীনে একাডেমিতে নিবিড় অনুশীলনে মগ্ন অর্ধশত বয়সভিত্তিক ফুটবলাররা। তবে এবার তারা পাচ্ছেন বিদেশী কোচ। একাডেমীর জন্য ইতোমধ্যে তিনজন ব্রিটিশ কোচকে নিয়োগ দিয়েছে বাফুফে। এরা হলেন- প্রধান কোচ এন্ড্রু পিটার টার্নার, বয়সভিত্তিক কোচ রবার্ট ম্যারিন রাইলস এবং গোলরক্ষক কোচ রবার্ট এন্ড্রু মিমস। এদেরকে পরিচয় করিয়ে দিতেই বৃহস্পতিবার বাফুফে আয়োজন করে সংবাদ সম্মেলনের। এতে একাডেমীর তিন কোচ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, ট্যাকনিক্যাল ডাইরেক্টর পল স্মলি ও জাতীয় দলের সহকারী কোচ স্টুয়ার্ট পল ওয়াটকিস।

সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে পল স্মলি বলেন,‘ অনেকেই হয়তো বলবেন বৃটিশ কেন ? আমাদের কাছে যে আবেদনগুলো পড়েছে এদের মধ্যে এরাই সবচেয়ে যোগ্য এজন্যই এরা এখানে এসেছেন।’ তিনি যোগ করেন,‘আপাতত একাডেমীর জন্য তিন কোচের চুক্তি থাকছে এক বছরের জন্য।’

একাডেমীর প্রধান কোচ এন্ড্রু পিটার টার্নার বলেন ,‘আমরা বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়ন করতে চাই। এজন্য এখানে এসেছি। তরুণদের নিয়ে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে আমাদের। তাই বাফুফে একাডেমীকে আমরা ভালো পর্যায়ে নিতে পারব।’ জানা গেছে, পিটার নব্বইয়ের দশকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের দল টটেনহাম হটসপ্যার ও পোর্টসমাউথে খেলেছেন।

বাফুফে একাডেমীতে মূলত অনুর্ধ্ব-১৪ থেকে অনুর্ধ্ব-১৯ বছর পর্যায়ের ফুটবলাররা থাকবেন। একাডেমীতে অনুর্ধ্ব-১৪ থেকে ১৬ পর্যন্ত খেলোয়াড়দের ডেভলাপমেন্টের দায়িত্বে থাকবেন রবার্ট ম্যারিন রাইলস। তার প্রতিক্রিয়া,‘আমরা প্রশিক্ষিত ফুটবলার তৈরি করব। এজন্য যা প্রয়োজন তার সবই করব। ফুটবলারদের সব জ্ঞান দেয়া হবে।’

দু’দিন আগে বাংলাদেশে আসলেও এখনো একাডেমীতে যাওয়া হয়নি বৃটিশ কোচদের। তাই একাডেমীর সুযোগ সুবিধা ও অবকাঠামো কোনো মন্তব্য করতে পারেননি তারা।

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল সাম্প্রতিক সময়ে বৃটিশ কোচ জেমি ডে’র অধীনে সাফল্য পাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় একাডেমীতে বৃটিশ কোচের প্রধান্য দিল বাফুফে। বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন,‘এই বছর আমাদের সাফ এবং এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ ও অনুর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্ট রয়েছে। এই টুর্নামেন্টগুলোতে একাডেমীর ফুটবলারই খেলবেন। আপাতত আমাদের এদিকেই বেশি মনোযোগ।’



 

Show all comments
  • estiak ahmed rifat ১৪ জুন, ২০১৯, ১০:১৮ এএম says : 0
    Asa kora jay Bangladesher jonno valo hobe karon Bangladesh ar jonno British ara prosikhon dibe jara valo valo jaygay khelechen English primear lauge khelechen !!!! "I Hope Good THe Ruselt"
    Total Reply(0) Reply
  • estiak ১৪ জুন, ২০১৯, ১০:১৫ এএম says : 0
    all the best
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল

১৭ জুলাই, ২০১৯
১৪ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন