Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

বাংলাদেশে চিকিৎসকদের আরো প্রশিক্ষণ প্রয়োজন

চট্টগ্রামে হাসপাতাল উদ্বোধনকালে ডা. দেবী শেঠী

চট্টগ্রাম ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৬ জুন, ২০১৯, ১২:০৯ এএম

বিশ্বখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী প্রসাদ শেঠী বাংলাদেশের চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেছেন, দেশেই ভালো চিকিৎসা পেলে বাংলাদেশি রোগীদের বিদেশে যাওয়ার প্রবণতা কমবে। চিকিৎসার জন্য প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ পার্শ্ববর্তী দেশসমূহে যাওয়া বাংলাদেশি মানুষের সংখ্যা প্রতিবছরই বাড়ছে। যা সবদিক থেকে ক্ষতি।

কিন্তু আমি এদেশে এসেছি একটি মিশন নিয়ে, সেটি হচ্ছে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে রোগী যাওয়া বন্ধ করা। আমি চাই না বাংলাদেশিরা বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাক। গতকাল (শনিবার) নগরীর পাহাড়তলীতে ৩৭৫ শয্যাবিশিষ্ট বিশ্বমানের আধুনিক ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. শেঠী একথা বলেন।

তিনি বলেন, আমেরিকার চেয়ে উপমহাদেশের চিকিৎসক-নার্সরা অনেক প্রতিভাবান। তারা খুবই পরিশ্রমী। সেটি অবশ্যই ইতিবাচক। এ হাসপাতাল বাংলাদেশে সঠিক ও উন্নত স্বাস্থ্যসেবার নতুন সংযোজন। এ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার ফলে বিদেশে বাংলাদেশি রোগী যাওয়ার প্রবণতা অনেকাংশে কমে আসবে।

ভারতের নারায়ণা হেলথের চেয়ারম্যান ডা. শেঠী বলেন, এ হাসপাতালটি ঘুরে দেখেছি। এটি একটি চমৎকার ও স্বয়ংসম্পূর্ণ হাসপাতাল। এখানে রয়েছে পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা। নিজস্ব চিকিৎসক-নার্সরা রয়েছেন। যেটি অন্যান্য হাসপাতাল থেকে আলাদা করেছে। তিনি রোগীদের ভাল চিকিৎসা সেবা প্রদানের মাধ্যমে এ হাসপাতাল এখানকার জনগণের আস্থা অর্জন করতে পারবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, ব্যবসার জন্য নয়, চট্টগ্রামের মানুষের স্বাস্থ্যসেবার বিষয়টিকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে কিছু মহৎ হৃদয়ের মানুষ এ হাসপাতালটি গড়ে তুলেছেন। এ হাসপাতালের মাধ্যমে চট্টগ্রামে অসুস্থ মানুষ এবং তাদের পরিবারকে আর্থিক, শারীরিক ও মানসিক চাপ থেকে মুক্তি দেয়ার জন্য কাজ করবে। তিনি বলেন, এ হাসপাতালে এক ছাদের নিচে সব ধরনের চিকিৎসাসেবা রয়েছে। অস্বচ্ছল রোগীদের জন্য ১০ শতাংশ চিকিৎসা সুবিধা, দূরবর্তী রোগীর দর্শনার্থীদের থাকার সুবিধার জন্য আবাসন সুযোগ রয়েছে।

ইম্পেরিয়াল বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, ভারতের বিখ্যাত নারায়ণা হেলথ এবং ইম্পেরিয়াল যৌথভাবে কার্ডিয়াক সেন্টার পরিচালনা করবে এবং ডাক্তার, নার্স ও টেকনিশিয়ানদের প্রশিক্ষণ প্রদান করবে। এছাড়া পূর্ণাঙ্গ অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা এবং হাসপাতাল জৈব বর্জ্য নিষ্কাশনের জন্য সরকারী নীতিমালা অনুসরণ এবং পরিবেশ সংরক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি এদেশের জনগণের ও রোগীদের পক্ষ থেকে ডা. দেবী প্রসাদ শেঠীকে ইম্পেরিয়াল হাসাপাতালের সাথে যুক্ত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং এ হাসপাতাল বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে হাসপাতালের মনোগ্রাম খচিত ক্রেস্ট দিয়ে প্রধান অতিথিকে সংবর্ধিত করেন অনুষ্ঠানের সভাপতি ও ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের বোর্ড মেম্বার এম এ মালেক। প্রায় নয়শ কোটি টাকা ব্যয়ে সাত একর জমির উপর এ হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।



 

Show all comments
  • Masuduzzaman ১৬ জুন, ২০১৯, ৩:৩৪ এএম says : 0
    Nice,like that,
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ