Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

লঙ্কানদের উড়িয়ে শীর্ষে অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৫ জুন, ২০১৯, ১১:২৮ পিএম

১০৮ বলে দরকার ১৪৯ রান, হাতে ৮ উইকেট। সেঞ্চুরির সামনে দাঁড়িয়ে দিমুথ করুনারতে্ন। সঙ্গী কুসল মেন্ডিসের ব্যাটেও আত্মবিশ্বাসের ছাপ স্পষ্ট। এমন ম্যাচেও শেষ পর্যন্ত ৮৭ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে শ্রীলঙ্কা। পাঁচ ম্যাচে চতুর্থ জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।

শনিবার লন্ডনের কেনিংটন ওভালে বিশ্বকাপের ২০তম ম্যাচে ৭ উইকেটে ৩৩৪ রানের সংগ্রহ গড়ে অজিরা। জবাবে ৪৫.৫ ওভারে ২৪৭ রানে শেষ হয় লঙ্কান ইনিংস। পাঁচ ম্যাচে করুনারতে্নর দলের এটি দ্বিতীয় পরাজয়। সঙ্গে একটি জয় ও দুটি পরিত্যক্ত ম্যাচ থেকে মোট চার পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানেই আছে শ্রীলঙ্কা।
অ্যারোন ফিঞ্চ ও স্টিভ স্মিথ যে ভিত গড়ে দিয়ে যান তাতে অস্ট্রেলিয়া দলীয় সংগ্রহ সাড়ে তিনশ’ অনায়াশেই হওয়ার কথা। ফিঞ্চ একাই করেন ১৩২ বলে ১৫ চার ও পাঁচ ছক্কায় ১৫৩ রান। স্মিথের ব্যাট থেকে আসে ৫৯ বলে ৭৩। শেষ দিকে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ২৫ বলে ৪৬ রানের ক্যামিও সংগ্রহটা বড় করতে ভূমিকা রাখে। স্মিথের সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে ১৭৩ রানের জুটির গড়ে ৪৩তম ওভারে ফিঞ্চ আউট হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া করতে পারে ৬১ রান। এর মধ্যে ম্যাক্সওয়েলের একার রানই ৪৬। শেষ পাঁচ ওভারে আসে ৩২। ডেভিড ওয়ার্নার এদিন ছিলেন খোলোসাবৃত। ১৭তম ওভারে ৮০ রানের জুটি গড়ে আউট হওয়অর সময় তার নামের পাশে ৪৮ বলে ২৬।
চলতি আসরে অধিনায়ক হিসেবে প্রথম সেঞ্চুরি করেন ফিঞ্চ। ক্যারিয়ারের ১৪ত সেঞ্চুরি ইনিংসকে দেড়শতে রূপ দেন ১২৮ বলে। লঙ্কান বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝড় গেছে নুয়ান প্রদীপের উপর দিয়ে। ৮৮ রান দিয়ে তিনি ছিলেন উইকেটশূন্য। ১০ ওভারে ৫৭ রানে ২ উইকেট নিয়ে ইনিংসের সেরা বোলার ইশুরু উদানা। মালিঙ্গা ৬১ রানে নেন স্মিথের উইকেটটি।
লঙ্কানদের জিততে হলে গড়তে হত রেকর্ড। সেই পথেই ছিল ছিয়ানব্ববইয়ের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ১৫ ওভারে ১১৫ রানের উদ্বোধনী জুটি উপহার দিয়ে যান ৩৬ বলে ৫২ রান করা কুসল পেরেরা। ধ্বস শুরু হয় মূলত দলীয় ১৮৬ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে দলপতি করুনারতে্নর (১০৮ বলে ৯৭) বিদায়ে। ৩ রানের জন্য ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির দেখা থেকে বঞ্চিত হন তিনি। এরপর আর কেউই আশা জাগাতে পারেননি। উদ্বোধনী জুটি বিচ্ছিন্ন করা মিচেল স্টার্ক মিডিল ও আঘাত হানেন। স্টার্কের ৫৫ রানে ৪ উইকেটের পাশাপাশি ৪৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে লঙ্কান ইনিংসকে ধ্বসীয়ে দেন কেন রিচার্ডসন।

অস্ট্রেলিয়া : ৫০ ওভারে ৩৩৪/৭ (ওয়ার্নার ২৬, ফিঞ্চ ১৫৩, খাজা ১০, স্মিথ ৭৩, ম্যাক্সওয়েল ৪৬*, মার্শ ৩, কারি ৪, কামিন্স ০, স্টার্ক ৫*; মালিঙ্গা ১০-১-৬১-১, প্রদিপ ১০-০-৮৮-০, উদানা ১০-০-৫৭-২, থিসারা ১০-০-৬৭-০, ডি সিলভা ৮-০-৪০-২, সিরিবর্দনা ২-০-১৭-০)।
শ্রীলঙ্কা : ৪৫.৫ ওভারে ২৪৭ (করুনারতে্ন ৯৭, কুসল পেরেরা ৫২, থিরিমান্নে ১৬, মেন্ডিস ৩০, ম্যাথিউস ৯, সিরিবর্দনা ৩, থিসারা ৭, ডি সিলভা ১৬*, উদানা ৮, মালিঙ্গা ১, প্রদিপ ০; স্টার্ক ১০-০-৫৫-৪, কামিন্স ৭.৫-০-৩৮-২, বেহরেনডর্ফ ৯-০-৫৯-১, রিচার্ডসন ৯-১-৪৭-৩, ম্যাক্সওয়েল ১০-০-৪৬-০)।
ফল : অস্ট্রেলিয়া ৮৭ রানে জয়ী
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : অ্যারন ফিঞ্চ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন