Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

সুনামগঞ্জের দুই উপজেলায় ৩ লাশ উদ্ধার

সুনামগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জুন, ২০১৯, ২:১৬ পিএম

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা ও ছাতক উপজেলায় দুই শিশুসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- ছাতক উপজেলার সাউদপুর গ্রামের করিম বক্সের মেয়ে তামান্না আক্তার (৭) ও অপরজন তারই আপন খালাতো বোন সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর গ্রামের রাজা মিয়ার মেয়ে রিনি বেগম (৭)। অন্যজন অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি।

শনিবার বিকালে জেলার ছাতকে পুকুরের পানিতে ডুবে তামান্না আক্তার ও রিনি বেগম নামে দুই বোনের মৃত্যু হয়।

জানা যায়, শনিবার বিকালে বসতবাড়ি লাগোয়া পুকুর থেকে ওই দুই বোনকে উদ্ধার করে ছাতকের কৈতক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

পরিবার সূত্র জানায়, উপজেলার সাউদপুর গ্রামে দুপুরের পর বাড়ি আঙিনায় তামান্না ও রিনি দুই খালাতো বোন খেলা করার সময় পরিবারের সবার অলক্ষ্যে পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। পরিবারের লোকজন ও প্রতিবেশীরা পুকুর থেকে ওই দুই শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয় কৈতক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই দুই শিশু মারা গেছে।

রোববার সকালে ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান ওই দুই শিশু পুকুরের পানিতে ডুবে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নিহত শিশুদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে শনিবার বিকালে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা থানা পুলিশ দুধবহর গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে চলা কংস নদী থেকে এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে।

রোববার সকালে ধর্মপাশা থানার ওসি মো. এজাজুল ইসলাম জানান, নিহত ব্যক্তির বয়স ২৫-৩০ বছর হবে। নিহতের পরিচয় শনাক্তে দেশের সব থানায় ছবিসহ বার্তা পাঠানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন