Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ভুলের মাশুল দিচ্ছে পাকিস্তান

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ জুন, ২০১৯, ৪:৩০ পিএম

ওয়াহাবের ১০ম ওভারে ও ইমাদের ১১তম ওভারে রোহিতের দুটি সহজ রান আউটের সুযোগ হাতছাড়া করে পাকিস্তান। সেই ভুলের মাশুল গুণতে হচ্ছে তাদের। মাত্র ৩৪ বলেই ব্যক্তিগত অর্ধশত রান পূর্ণ করেন এই ওপেনার। রোহিত ৫০ রানে ও রাহুল ২৭ রানে অপরাজিত আছেন।

১২ ওভার শেষে সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৭৯ রান।

ভারতের দুর্দান্ত শুরু

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ভারতের শুরুটা হয়েছে দুর্দান্ত। নিয়মিত ওপেনার শেখর ধাওয়ানের ইনজুরির কারনে রোহিত শর্মার সঙ্গে ভারতীয় ইনিংস উদ্বোধন করেন লোকেশ রাহুল। ইনিংসের প্রথম ৮ ওভারেই রোহিত ৪টি চার ও একটি ছক্কা হাঁকান। রাহুল মেরেছেন একটি চার। রোহিত ৩১ রানে ও রাহুল ১০ রানে অপরাজিত আছেন।

৮ ওভারে ভারতের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৪২ রান।

টসে জিতে বোলিংয়ে পাকিস্তান

টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ।ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিও টসে জিতলে বোলিং নিতেন বলে জানিয়েছেন। পাকিস্তান দল আজ দুইজন স্পিনার দলে রেখেছে। শাদাব খান ও ইমাদ ওয়াসিম ফিরেছেন মূল একাদশে। অন্যদিকে ভারতীয় স্কোয়াডে শেখর ধাওয়ানের পরিবর্তে খেলবেন বিজয় শঙ্কর।

স্পিন আক্রমন শক্তিশালী করেছে পাকিস্তান

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একজন স্পিনারও খেলায়নি পাকিস্তান। আজ ভারতের বিপক্ষে দুইজন স্পিনার দলে নিয়েছে দলটি। ভারতের স্কোয়াডে কুলদীপ-চাহাল আক্রমনের বিপরীতে পাকিস্তান ব্যবহার করবে ইমাদ-শাদাব আক্রমন।

ভারতের একাদশ: রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, কেদার জাদব, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (উইকেটরক্ষক), হার্দিক পান্ডিয়া, ভুবেনেশ্বর কুমার, কুলদিপ যাদব, যুগবেন্দ্র চাহাল, জসপ্রিত বুমরা।

পাকিস্তান একাদশ: ফখর জামান, ইমাম উল হক, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), শোয়েব মালিক, ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, হাসান আলী, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ আমির।

দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াই

বিশ্বকাপের ২২তম ম্যাচে মুখোমুখি লড়াইয়ে অবতীর্ণ হচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে। খেলার আগেই মিডিয়াতে বিজ্ঞাপনী লড়াইয়ে সমানে সমানে লড়েছে ভারত-পাকিস্তান। এবার খেলার মাঠেও তাই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই আশা করছেন ক্রিকেটভক্তরা।

পরিসংখ্যান:

মুখোমুখি লড়াইয়ের সমীকরনে বেশ এগিয়ে আছে ১৯৯২ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু বিশ্বকাপের লড়াইয়ের ময়দানে এগিয়ে ১৯৮৩ ও ২০১১ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

ওয়ানডেতে:

ম্যাচ: ১৩১

পাকিস্তান জয়ী: ৭৩

ভারত জয়ী: ৫৪

পরিত্যক্ত: ৪

বিশ্বকাপে:

ম্যাচ: ৬

ভারত জয়ী: ৬

পাকিস্তান জয়ী: ০



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন