Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

পাকিস্তান দলকে ধুয়ে দিচ্ছে দেশটির গণমাধ্যম

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০১৯, ৫:৩৬ পিএম

পাক-ভারত ম্যাচ মানেই উত্তেজনা, রোমাঞ্চ, নাটকীয়তা। কিন্তু রোববার বিশ্বকাপের ম্যাচে এর ছিটেফোঁটাও পাওয়া গেল না। ভারতের কাছে স্রেফ খড়কুটোর মতো উড়ে গেছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপে এ নিয়ে সাত বার মুখোমুখি হয়ে কোনো বারই ভারতকে হারাতে পারল না পাকিস্তান। এবারের হারের পর দেশটির গণমাধ্যম সরফরাজ আহমেদের দলকে নিয়ে তুমুল সমালোচনা শুরু করেছে।
পাকিস্তানের প্রথম সারির সংবাদপত্র ‘ডন’-এ ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচের প্রতিবেদনের শিরোনাম করেছে- ভারত ৭ পাকিস্তান ০। পত্রিকাটির প্রতিবেদনে পাকিস্তান দলের প্রবল সমালোচনা করে বলা হয়েছে, ‘ভাল দলের বিপক্ষে হারলে কারও কিছু বলার নেই। কিন্তু কয়েকটা ব্যাপার তো নিজেদের নিয়ন্ত্রণাধীন। যেমন, দল নির্বাচন, টস জিতে কী করা উচিত ইত্যাদি। মাঠে নেমে নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দিতে হয়। কিন্তু, সুযোগ পেয়েও ভারতের টপ স্কোরার রোহিত শর্মাকে দু’বার রান আউট করতে পারল না পাকিস্তান।’ হার্দিক পান্ডিয়ার প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে যাওয়া শোয়েব মালিকের দলে অর্ন্তুক্তি নিয়েও সমালোচনা করা হয়েছে উক্ত প্রতিবেদনে, ‘এরকম একটা ম্যাচে পাকিস্তান নিল শোয়েব মালিককে। অথচ শোয়েব এখন নিজের সেরা সময় ফেলে এসেছে।’
‘দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’-এর প্রথম পাতায় প্রকাশিত খবরের শিরোনাম, ‘পাকিস্তানকে হারিয়ে রেকর্ড অক্ষুন্ন রাখল ভারত।’ চলতি বিশ্বকাপের শুরুটা ভাল হয়নি পাকিস্তানের। ‘জিও টিভি’-তে সরফরাজের বক্তব্য প্রকাশিত হয়েছে। প্রেস কনফারেন্সে সরফরাজ বলেছেন, ভারতের কাছে লজ্জাজনকভাবে হারের পরেও বিশ্বকাপ থেকে তিনি ছিটকে যাওয়ার ভয় পাচ্ছেন না। সরফরাজ ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে আশাবাদী।
‘পাকিস্তান অবজারভার’-এ আবার লেখা হয়েছে, বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারত টানা জয়ের ধারা বজায় রাখল। প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার শোয়েব আখতার তার কলামে লিখেছেন, ‘চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল যে কারণে হেরেছিল কোহালিরা, ঠিক একই কারণেই বিশ্বকাপে ভারতের কাছে সরফরাজরা হারল।’ ম্যানচেস্টারে বল গড়ানোর আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরামর্শ ছিল টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নিও। সরফরাজ টস জিতলেও প্রথমে ব্যাটিং নেননি। ভারতকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠান।
পাক অধিনায়কের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে ‘ডন’-এ লেখা হয়েছে, ম্যানচেস্টারের উইকেট তো এশিয়ান উইকেট ছিল। সেরকম উইকেট পেয়েও কেন প্রথমে ব্যাট নেওয়া হল না?
ভারত যে শক্তিশালী দল তা স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে অনেক পাক সংবাদপত্রে। পাকিস্তান যে এখন ক্রিকেটে নখ-দন্তহীন একটা দল সেকথাও বলেছে অনেক পত্রিকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন