Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

পীরগাছায় সুদের টাকা আদায়ে জিম্মাদারের বাড়িতে তালা

খোলা আকাশের নিচে বৃদ্ধ বাবা-মা

পীরগাছা (রংপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০১৯, ৬:০৩ পিএম

রংপুরের পীরগাছায় সুদের টাকা উত্তোলন করে দিতে না পারায় জিম্মাদারের বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে চিহ্নিত দাদন ব্যবসায়ীরা । ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের চৌধুরানী বাজারের রামচন্দ্র পাড়া গ্রামে। ওই ঘটনায় দাদন ব্যবসায়ীদের হুমকিতে জিম্মাদার তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে পালিয়ে বেড়ালেও তার বৃদ্ধ মা-বাবা শনিবার রাত থেকে খোলা আকাশের নিচে রাত্রি যাপন করছে।

এলাকাবাসী ও আতগোপনে থাকা ভূক্তভোগীর পরিবার জানায়, উপজেলার চৌধুরাণী বাজারে দীর্ঘ দিন থেকে এলাকার চিহ্নিত দাদন ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে মাধু মিয়া, ছামছুল হকের ছেলে মন্টু মিয়া, আব্দুল মান্নানের ছেলে আঙ্গুর ও মাসুদ মিয়ার ছেলে মিলন মিয়া বিভিন্ন ব্যবসার নামে চড়া সুদে দাদন ব্যবসা করে আসছিল। তাদের দাদন ব্যবসার টাকা বিতরণ ও উত্তোলন করার জন্য একই গ্রামের বদিয়ার রহমানের ছেলে চাতাল শ্রমিক উকিল মিয়া(বল্টু)কে দায়িত্ব দেয়া হয়।
সম্প্রতি সময় ধানের দাম না থাকায় অধিকাংশ ঋণ গ্রহিতা সময় মত সুদের টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে দাদন ব্যবসায়ীরা উত্তোলনকারী উকিল মিয়াকে চাপ প্রয়োগ করে। এতে সে টাকা তুলে দিতে ব্যর্থ হলে বাড়ি দখলের উদ্যেশ্যে গত শনিবার রাতে ওই দাদন ব্যবসায়ীরা উকিল মিয়া ও তার পরিবারকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে বসত ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এসময় উকিল মিয়া বাঁধা দিলে তারা তাকে ও তার বৃদ্ধ বাবা-মাকে নানা ভয়ভীতি দেখায়। বর্তমানে দাদন ব্যবসায়ীদের ভয়ে উকিল মিয়া তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে আতেœাগোপনে থাকলেও তার বৃদ্ধ বাবা-মা খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছে।
এ বিষয়ে দাদন ব্যবসায়ী মাধু মিয়া জানান, উকিল মিয়া আমাদের ব্যবসার কিছু টাকা উত্তোলন করে আতœসাত করে। এ টাকা আদায়ের জন্য তার বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে।

 

 



 

Show all comments
  • md :Mydul islam ১৯ জুন, ২০১৯, ১০:৫৭ এএম says : 0
    এখানে সব কথা সত্য নয়
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ