Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

গফরগাঁওয়ে দুই সহোদরকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় দুইসহোদর ভাইকে গাছের সাথে বেঁেধনির্যাতন করা হয়েছে। পূর্বেও পারিবারিক বিরোধের জের ধাে তাদের গাছের সাথে বেঁধেনির্যাতন করা হয় নির্যাতিত দুইসহোদরইলিয়াস (২১) ও ইকরাস (২৪) উপজেলার চরমছলন্দ কান্দাপাড়া গ্রামের মোঃ আব্দুল খালেকের ছেলে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ নির্যাতিত দুইভাইকে উদ্ধার করেএবং এ ঘটনায়জড়িত থাকার অভিযোগে তাদের ভগ্নিপতি আবুসাঈদ(৩৭)কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।এ ঘটনায় সোমবার সকালে গফরগাঁও থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, থানায় দায়েরকরা অভিযোগ ও ভুক্তভোগীদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, চরমছলন্দ কান্দা গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়ে শিউলির সাথে চরমছলন্দ কাচারীপাড়া গ্রামের আছর আলীর ছেলে আবু সাঈদের বিয়ে হয় ১৫ বছর পূর্বে। বিয়ের পর থেকেই শিউলি স্বামীরসংসারে যৌতুকসহ নানা কারনে অত্যাচারিত হয় ।অত্যাচার সইতেনা পেরে গত ৬ মাস পূর্বে শিউলি তিন সন্তানসহ স্বামীর সংসার ত্যাগ করে। এ ঘটনার জের ধওে উভয় পরিবারের মধ্যে দ্ব›েদ্বর সৃষ্টিহয়।

গত রোববার সকালে ইলিয়াস ও ইকরাস তাদের বাড়ির একটি অনুষ্ঠানের জন্য প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করার উদ্দেশ্যে তাদের বোন জামাইয়ের বাড়ির সামনে দিয়ে অটোরিক্সা যোগে গফরগাঁও বাজাওে যাওয়ার সময় বোন জামাই আবুসাঈদ ও আবুসাঈদের আত্ত¡ীয় ইলিয়াস (৩০), রহিম (৪২), হাবিবুর (৩৫),জসিম (৪০),হাফিজউদ্দিন (৩৬) তাদের অটোরিক্সার গতিরোধকরে। ইলিয়াস ও ইকরাসকে টেনে হেচঁড়েঅটোক্সিা থেকে নামিয়েতাদের সঙ্গে থাকানগদ ২০ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ইলিয়াস ও ইকরাসকে ধওে আবু সাঈদের বাড়ির ভিতওে নিয়ে একটি কড়ইগাছের সাথে বেঁধেলাঠিদিয়ে বেধড়ক পেটায় একং এলাপাথারী কিলঘুষিমারে। খবর পেয়েইলিয়াস ও ইকরাসের পিতা আব্দুলখালেক এলাকাবাসীদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গেলে সন্ত্রাসীরা আব্দুলখালেককে ও গাছের সাথে বেধেঁনির্যাতনকরে। এলাকাবাসীর চাপে সন্ত্রাসীরাআব্দুল খালেককে ছেড়ে দেয়। আব্দুলখালেকেরপরিবারের লোকজনগফরগাঁও থানাপুলিশকে খবর দিলে থানা পুলিশইলিয়াস ও ইকরাসকেউদ্ধারকরে থানায় নিয়ে আসে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন